আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > বিনোদন-সংস্কৃতি > ধর্ষণ দৃশ্যে বাধ্য করা হয়েছিল মাধুরীকে!‌

ধর্ষণ দৃশ্যে বাধ্য করা হয়েছিল মাধুরীকে!‌

ধর্ষণ দৃশ্যে বাধ্য করা হয়েছিল মাধুরীকে!‌

প্রতিচ্ছবি বিনোদন ডেস্ক:

বলিউডের ডান্স কুইন খ্যাত নামী অভিনেত্রী মাধুরী দীক্ষিত। মাত্র ১৭ বছর বয়সে অবোধ সিনেমা দিয়ে বলিউডে হাতেখড়ি হয়েছিল তার। সিনেমায় আগের মতো দেখা না গেলেও এখনো দারুণ জনপ্রিয় বলিউডের এই অভিনেত্রী। সস্তা জনপ্রিয়তা পেতে অনেক সময়েই সিনেমায় ধর্ষণ দৃশ্য জুড়ে দেয়া হয়।

অভিনেত্রী সেই দৃশ্য শ্যুট করতে না চাইলেও তাকে ছাড়া হয় না। তিন দশক আগে এমনই অপরিস্থিতির শিকার হয়েছিলেন মাধুরী দীক্ষিত। সম্প্রতি একটি রেডিও চ্যানেলের বরাত দিয়ে এমন তথ্য জানিয়েছেন জেহরা কাজমি নামের এক সাংবাদিক। খবর ইন্ডিয়া ডট কমের।

খবরে বলা হয়, টুইটার ব্যবহারকারী অভিনেতা ও উপস্থাপক অন্নু কাপুরের রেডিওর শোয়ের মাধ্যমে বিষয়টা জানতে পারেন জেহরা কাজমি।

জেহরা বলেন, বাপুর পরিচালনায় একটি সিনেমার শুটিং চলছিল। একটি দৃশ্য ছিল মাধুরীকে ধর্ষণ করবেন সিনেমার খলনায়ক রঞ্জিত। সেই দৃশ্যে অভিনয় করতে চাননি মাধুরী। কিন্তু অনেক চেষ্টা করেও তিনি সেটা থেকে বের হয়ে আসতে পারেননি।

পরিচালক জোর দিয়ে বলেছিলেন, ‘‌ধর্ষণ দৃশ্য তো থাকবেই’।‌ পরে সেই দৃশ্য শুটিং করা হয়। পরিচালক থেকে ক্রু— সকলেই শুটিংয়ের পরে হাততালি দিয়ে ওঠেন। মাধুরী তখন কথা বলার মতো অবস্থায় ছিলেন না।

সেই অভিজ্ঞতার কথাই সম্প্রতি একটি রেডিও চ্যানেলে বর্ণনা করছিলেন অন্নু কাপুর। অন্নুর কথা বলার ধরণ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন জেহরা।

তার মতে, ঘটনার বর্ণনা রসিয়ে রসিয়ে বলেছেন অভিনেতা অন্নু। তাতে নারীদের সম্মানহানি হয়েছে। তিনি এতটাই রসিয়ে বলেছেন যে ‘‌‌রেপ সিন তো হোগা’‌ মন্তব্যের পরে ক্যাবের ড্রাইভারও হেসে ওঠেন।

এর কয়েক মাস আগে, বিখ্যাত অভিনেত্রী চিত্রাঙ্গদা সিং দাবি করেছিলেন, ‘বাবুশাই বন্দুকবাজার’ চলচ্চিত্রের জন্য নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকীর সঙ্গে যৌনসম্পর্ক করার জন্য তাকে কিভাবে জোর করা হয়েছিল। এ কারণে তিনি মাঝখানেই ছবিটি ছেড়ে দিয়েছিলেন।

তিনি বলেন, এটা খুবই দুঃখের বিষয়, যখন বলিউড অভিনেত্রীরা না চাইলেও তাদের এমন দৃশ্য করতে বাধ্য করা হয়।

এসএম

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে