আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > রংপুর > ভোটগ্রহণ শেষে নগরপিতার অপেক্ষায় রংপুরবাসী

ভোটগ্রহণ শেষে নগরপিতার অপেক্ষায় রংপুরবাসী

ভোটগ্রহণ শেষে নগরপিতার অপেক্ষায় রংপুরবাসী

প্রতিচ্ছবি রংপুর ব্যুরো:

উৎসবমুখর পরিবেশে কোনো ধরনের অঘটন ছাড়াই শেষ হলো রংপুর সিটি করপোরেশন (রসিক) নির্বাচনের ভোটগ্রহণ। ভোট শেষে এখন চলছে গণনার পর্ব। প্রায় চার লাখ ভোটারের এই নগরের নগরপিতা কে হচ্ছেন? জানা যাবে আজই।

বৃহস্পতিবার (২১ ডিসেম্বর) সকাল আটটায় ভোটগ্রহণ শুরুর পর থেকেই কেন্দ্রে আসতে থাকেন ভোটাররা। ভোট গ্রহণ শেষ হয় বিকেল চারটায়। ভোটগ্রহণ চলাকালীন নগরজুড়ে নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করেছে বিজিবি, র‌্যাব ও পুলিশের প্রায় ৫ হাজার সদস্য।

ভোর থেকেই প্রচণ্ড শীতকে উপেক্ষা করে লাইনে দাঁড়িয়ে সুশৃঙ্খলভাবে রংপুর সিটি করপোরেশনের (রসিক) নগরপিতা নির্বাচনে পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দেন নগরবাসী। ভোরে ভোটার উপস্থিতি কম থাকলেও বেলা বাড়ার সাথে সাথে উপস্থিতিও বাড়তে থাকে।

দ্বিতীয়বারের মতো সিটি করপোরেশন নির্বাচন নিয়ে উচ্ছ্বাস ছিলো নতুন ভোটারদের মধ্যে। এবার ৩৬ হাজারের বেশি নতুন ভোটার হয়েছেন। নির্বিঘ্নে ভোট দিতে পেরে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন তারা। এলাকার উন্নয়নের পাশাপাশি পুরো সিটির উন্নয়নে যিনি কাজ করবেন এমন প্রার্থী প্রতিই তাদের সমর্থন রয়েছে বলেও জানান তরুণ ভোটাররা।

এদিকে, ভোট গ্রহণ শুরুর পর বিভিন্ন কেন্দ্র ঘুরে নির্বাচনী পরিবেশ নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন নির্বাচন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

নিরাপত্তার বিষয়ে রংপুরের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মিজানুর রহমান বলেন, ‘কোনো প্রকার বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হয়নি। ভোটগ্রহণ সুন্দরভাবে শেষ হয়েছে।’

রংপুরের জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুজ্জামান বলেন, ‘কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি। আচরণবিধি লঙ্ঘনের কোনো ঘটনা ঘটেনি। একটা শান্তিপূর্ণ নির্বাচন হয়েছে।’

উল্লেখ্য, রংপুর সিটি করপোরেশন (রসিক) নির্বাচনে এবারই প্রথম দলীয় প্রতীকে ভোটগ্রহণ হয়েছে। এবার মেয়র পদে মোট সাতজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। এছাড়া কাউন্সিলর পদে ২১১ জন ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ৬৫ জন নারী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

১৯৩টি ভোট কেন্দ্রে ভোটারের সংখ্যা ৩ লাখ ৯৩ হাজার ৯শ ৯৪ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৯৬ হাজার ৩৫৬ জন এবং নারী ভোটার ১ লাখ ৯৭ হাজার ৬৩৮ জন।

 

মেরিনা লাভলী/এ আর

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে