আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > আন্তর্জাতিক > গুজরাট-হিমাচলে জয়ের পথে মোদির বিজেপি

গুজরাট-হিমাচলে জয়ের পথে মোদির বিজেপি

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি

প্রতিচ্ছবি ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক:

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির রাজ্য গুজরাটে বড় চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছিল বিরোধী দল কংগ্রেস। আজ সকালে ফলাফল ঘোষণা শুরুর ১ ঘণ্টার মধ্যে দুই দলের হাড্ডাহাড্ডি লড়াই ছিল স্পষ্ট। তবে এখন ১০৬টি আসনে এগিয়ে আছে বিজেপি। কংগ্রেস আছে ৭৪টিতে।

সর্বশেষ ভারতের ইংরেজি সংবাদভিত্তিক টেলিভিশন চ্যানেল এনডিটিভির বিশ্লেষণে এ সংখ্যা দেখা যায়। এর আগে ১৮২ আসনের গুজরাটে বিধানসভার আসনের লড়াইয়ে বিজেপি ছিল ৯০, কংগ্রেস ৮৮। কিন্তু সেই ধারা অব্যাহত থাকল না।

নরেন্দ্র মোদি

কংগ্রেস হারার পথে থাকলেও গুজরাটে ২২ বছর ধরে ক্ষমতায় থাকা বিজেপি বেশ ধাক্কা খেয়েছে। তারা হারিয়েছে ৮টি আসন। আর কংগ্রেস গতবারের চেয়ে ১৩ আসন বেশি পেয়েছে।

ভোট গণণা শুরুর এক ঘণ্টার মধ্যে নিজের ঘরেই কড়া চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বিজেপি এগিয়ে থাকলেও সাম্প্রতিক এমন লড়াই আর দেখা যায়নি। উত্তরপ্রদেশে বিজেপিকে এতদিন একপেশে জিতেছিল।

নরেন্দ্র মোদি প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর এই প্রথমবারের মতো তার রাজ্য গুজরাটে বিধানসভা নির্বাচন হচ্ছে। এবারের নির্বাচনী প্রচারে মোদিই ছিলেন বিজেপির মূল ইস্যু। এবার জিতলে টানা ছয়বার গুজরাট বিধানসভার দখল থাকবে বিজেপির হাতে।

অন্যদিকে কংগ্রেসের সদ্য দায়িত্বপ্রাপ্ত দলপ্রধান রাহুল গান্ধীর দল কংগ্রেসও মোদির নিজের ঘরেই চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছেন।

গুজরাট নির্বাচনের এ ফলাফলকে গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করছেন বিশ্লেষকেরা। বিজেপি ও কংগ্রেসের এই প্রতিযোগিতা শুধু রাজ্যের জন্যই নয়, কেন্দ্রীয় নির্বাচনের জন্যও গুরুত্বপূর্ণ মনে করা হচ্ছে।

প্রাথমিক ভোট গণনায় গুজরাটের পশ্চিম রাজকোটে এগিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রুপাণী। উপমুখ্যমন্ত্রী নিতিন প্যাটেল শুরুতে পিছিয়ে থাকলেও, পরে এগিয়েছেন।

হিমাচল প্রদেশেও বিধানসভা নির্বাচনে ভোট গণনা শুরু হয়েছে। সেখানে মোট ৬৮ আসনে বিজেপি এগিয়ে আছে ৪০ টিতে। আর কংগ্রেস এগিয়ে আছে ২৫ টিতে। গত নির্বাচনে জয় পাওয়া ১০টি আসনে পিছিয়ে আছে কংগ্রেস।

গত ৯ এবং ১৪ ডিসেম্বর দুই দফায় ভোট হয়েছে গুজরাটে। ২০১২ সালের ভোটে ১১৫ আসনে জিতে ক্ষমতায় এসেছিল বিজেপি। কংগ্রেস পেয়েছিল ৬১ আসন।

এসএম

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে