আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > খেলাধুলা > অ্যাডিলেডে বোলারদের দিন; ফলোঅনে ইংলিশরা

অ্যাডিলেডে বোলারদের দিন; ফলোঅনে ইংলিশরা

অ্যাডিলেডে বোলারদের দিন; ফলোঅনে ইংলিশরা
অ্যাডিলেডে বোলারদের দিন

প্রতিচ্ছবি স্পোর্টস ডেস্ক:

অ্যাডিলেডে প্রথম দুই দিনে বল হাতে খুব একটা সুবিধা করতে পারেননি বোলাররা। উইলোবাজদের দাপটে বোলারদের হাতে উঠেছিল কেবল ৯ উইকেট। তবে তৃতীয় দিনটি বোলারদের বললে কম বলা হবে না। ইংলিশদেরতো ফলোঅনই করিয়ে ছাড়ল অস্ট্রেলিয়ানরা। তবে দ্বিতীয় ইনিংসে নেমে ইংলিশদের দাপুটে বোলিংয়ে ভালো নেই স্বাগতিকরাও। সব মিলিয়ে তৃতীয় দিনে বোলারদের ঝুলিতে গেছে ১৩ উইকেট।

টস জয়ের পর বল হাতে ইংলিশদের স্বপ্নটা ছিল অসিদের অল্প রানে গুটিয়ে দেয়ার। সেটা হয়নি। উল্টো রানপাহাড়ে চেপে ডিক্লেয়ার করেছিল স্বাগতিকরা। এরপর নিজেদের মান বাঁচাতে উইলো হাতেও ব্যার্থ সফরকারিরা। তৃতীয় দিন মধ্যাহ্ন বিরতির পর মাঠে ফিরতেই ২২৭ রানে ফুলস্টপ। লজ্জার ফলোঅনে পড়তে হল জো রুটের দলকে।

ব্যাট হাতে দ্বিতীয় ইনিংসে নেমে অবশ্য খুব একটা ভালো নেই অসিরাও। মাত্র ৫৪ রান তুলতেই সাজঘরে ফিরে গেছেন ৪ ব্যাটসম্যান। দিনশেষে বাইশগজ আকড়ে মাঠ ছেড়েছেন নাথান লায়ন ও পিটার হ্যান্ডসকম। দুজনেরই নামের পাশে রয়েছে ৩ রান।

জেমস অ্যান্ডারসন ও ক্রিস ওকসের শিকার দুটি করে উইকেট।

এরআগে অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে সর্বোচ্চ ৪টি উইকেট নেন নাথান লিয়ন। আর আগের দিনের এক উইকেটের সঙ্গে মিচেল স্টার্ক আজ নেন আরো ২টি উইকেট। আর প্যাট কামিন্সের শিকার ২টি উইকেট। অন্যটি দখলে নিয়েছেন জশ হ্যাজলউড।

প্রথম ইনিংসে দেড় দিনের বেশি সময় ব্যাট হাতে ৮ উইকেটে ৪৪২ রান তুলে ইনিংস ঘোষণা করেছিল অস্ট্রেলিয়া। ফলোঅন এড়াতে তাই কমপক্ষে ২৪৩ রান দরকার ছিল ইংল্যান্ডের। শেষ পর্যন্ত সেটাও হয়নি। অজিদের প্রথম ইনিংসের চেয়ে ২১৫ রানে পিছিয়ে থেকেই শেষ হয় তাদের ইনিংস।

আগের দিনই মার্ক স্টোনম্যান ফিরে গিয়েছিলেন। ১ উইকেটে ২৯ রান নিয়ে খেলতে নামা ইংল্যান্ড তৃতীয় দিনেও প্রতিরোধ গড়তে পারেনি। উল্টো তাদের কোনঠাসা করে ফেলেন অস্ট্রেলিয়ার বোলাররা।

১৪২ রানেই ৭ উইকেট হারিয়ে ফেলার পর দুইশ করাও কঠিন মনে হচ্ছিল ইংল্যান্ডের জন্য। শেষপর্যন্ত অবশ্য তারা দুইশ পেরিয়েছে, লোয়ার অর্ডারের ক্রিস ওকস আর ক্রেইগ ওভারটনের সৌজন্যে। ওকস ৩৬ করে আউট হয়েছেন। সঙ্গীর অভাবে ওভারটন শেষ পর্যন্ত অপরাজিত ছিলেন ৪১ রানে।

এর আগে, দিনের শুরুতেই জেমস ভিন্সকে (২) তুলে নেন জশ হ্যাজলউড। অধিনায়ক জো রুটও বেশিদূর এগুতে পারেননি। ৯ রান করে তিনি প্যাট কামিন্সের শিকার হন। ৩৭ করে অ্যালিস্টার কুকও নাথান লিয়নের ঘুর্ণিতে ফিরলে ৮০ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে বসে ইংল্যান্ড।

এরপর ডেভিড মালান (১৯), মঈন আলী (২৫) আর জনি বেয়ারস্টো (২১) কিছুটা প্রতিরোধ গড়লেও ইনিংস বড় করতে পারেননি। অষ্টম উইকেটে ওকস আর ওভারটনের ৬৬ রানের জুটিটিই ছিল ইংলিশ ইনিংসের সবচেয়ে বড় জুটি।

স্কোর দেখতে ক্লিক করুন

এম এম

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে