আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > অপরাধ > ডাকাতি ও মাদক ব্যবসা: এক মাসে ৩৫ রোহিঙ্গা আটক, আগ্নেয়াস্ত্র জব্দ

ডাকাতি ও মাদক ব্যবসা: এক মাসে ৩৫ রোহিঙ্গা আটক, আগ্নেয়াস্ত্র জব্দ

রোহিঙ্গা ক্যাম্প [১]

প্রতিচ্ছবি কক্সবাজার প্রতিনিধি:

নানা অপরাধে জড়িয়ে পড়ছে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গারা। এরইমধ্যে পুলিশ এবং স্থানীয়দের উপর হামলার ঘটনা ঘটেছে একাধিকবার। চুরি-ডাকাতির ঘটনাও ঘটছে অহরহ। চলতি মাসেই অস্ত্রসহ নানা অপরাধে ৩৫ রোহিঙ্গাকে আটক করা হয়েছে।

মিয়ানমারে সহিংসতার পর গত ২৫ আগস্ট থেকে কক্সবাজারের উখিয়া ও টেকনাফে আশ্রয় নিয়েছে সাড়ে ৬ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা। পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের আশ্রয়, খাবার, চিকিৎসা, স্যানিটেশন, শিক্ষাসহ সব ধরনের সহায়তা দেয়া হচ্ছে। বাংলাদেশ তাদের মানবিক কারণে আশ্রয় দিলেও রোহিঙ্গাদের মধ্যে অনেকেই নানা অপরাধে জড়িত।

ক্যাম্পের বাইরেও ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে অনেক রোহিঙ্গা। সব ধরনের সহায়তার পরও ক্যাম্প থেকে পালিয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে পড়তে মরিয়া অনেকে। এ পর্যন্ত ৩১ হাজার রোহিঙ্গাকে আটক করে ক্যাম্পে ফেরত পাঠানো হয়েছে।

রোহিঙ্গা ক্যাম্প [২]

কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের তথ্য অনুযায়ী, গত ২১ অক্টোবর টেকনাফের নয়াপাড়া ক্যাম্পে কবির আহম্মদ নামে এক এসআইকে পিটিয়ে আহত করে রোহিঙ্গারা। ২৭ অক্টোবর রামুর খুনিয়াপালংয়ে আব্দুল জব্বার নামে এক বাঙালি যুবককে কুপিয়ে হত্যা করে এক রোহিঙ্গা। একই দিন বালুখালী ক্যাম্পে রোহিঙ্গাদের হামলায় ৪ জন নলকূপ শ্রমিক আহত হয়। সে সময় দেশীয় ২টি বন্দুকসহ ২ রোহিঙ্গাকে আটক করে পুলিশ। ৩০ অক্টোবর ডাকাতির প্রস্তুতির সময় উখিয়ার বালুখালী ক্যাম্প এলাকার বাগান থেকে অস্ত্রসহ ৫ রোহিঙ্গাকে আটক করে র‌্যাব।

আর

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে