আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > ক্যাম্পাস > বর্ণিল সাজে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৭ বছর উদযাপন

বর্ণিল সাজে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৭ বছর উদযাপন

khulna University 2

প্রতিচ্ছবি খুবি প্রতিনিধি:

মহানগরী খুলনা থেকে ৩ কিলোমিটার পশ্চিমে ময়ূর নদীর পাশে, গল্লামারীতে মনোরম পরিবেশে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়। দীর্ঘ পথ-পরিক্রমায় এ বিশ্ববিদ্যালয়টি পদার্পণ করল ২৭ বছরে। দিবসকে সামনে রেখে পুরো ক্যাম্পাস সেজেছে বর্ণিল সাজে।

এ উপলক্ষে দিনব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়। সকালে মঙ্গল শোভাযাত্রা, দুপুরে দোয়া মহাফিল, বিকেলে সংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সন্ধায় প্রদীপ্ প্রজ্বলনসহ বিভিন্ন বর্ণাঢ্য আয়োজন।

প্রতিবছর ‘বিশ্ববিদ্যালয় দিবস’ উপলক্ষে শিক্ষামেলার আয়োজন করা হয়। সেখানে প্রতিটি ডিসিপ্লিনের জন্য একটি করে স্টল বরাদ্দ থাকে। প্রতিটি ডিসিপ্লিনের অ্যাকাডেমিক প্রোফাইল এবং সার্বিক চিত্র ডিজিটাল ব্যানারে উপস্থাপন করা হয়। যা বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি অনন্য বৈশিষ্ট্য।

Khulna university

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় ছিল দক্ষিণপশ্চিম অঞ্চলের মানুষের প্রাণের দাবি। নানা আন্দোলন-সংগ্রাম ও চড়াই-উৎরাই পার হয়ে প্রতিষ্ঠা পায় বিশ্ববিদ্যালয়টি। আর এজন্য বিশ্ববিদ্যালয়টির প্রতি এ অঞ্চলের মানুষের রয়েছে আবেগমাখা অনুভূতি।

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রদের জন্যে কোন নিজস্ব ছাত্রফোরাম নেই,কোন দলীয় নেতা নেই, কোন দলের স্বার্থনেষী কার্যক্রম নেই, নেই কোন টেন্ডারবাজী, কোন অস্ত্রের ঝংকার, কোন রক্তের বিভীষিকা! তবুও এখানে টিকে আছে নেতৃত্ব, বেঁচে আছে সংগ্রাম ও প্রতিবাদ। এখানকার ছাত্ররা স্বপ্ন দেখে সুন্দর আগামীর, স্বপ্ন দেখায় সুন্দর আগামীর। এরা বিচার করতে পারে নিরপেক্ষভাবে, এরা প্রতিবাদ করতে পারে স্বার্থন্বেষী ভাবনার বাইরে এসে, এক হয়ে!

আর তাই সেশনজট, সন্ত্রাস ও রাজনীতিমুক্ত, দেশের একমাত্র পাবলিক বিশ্বাবদ্যালয়  হিসেবে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের রয়েছে সম্মোহনী স্বকীয়তা । পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে বুয়েটের পরই ১৯৯৭-৯৮ শিক্ষাবর্ষ থেকে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে কোর্স ক্রেডিট পদ্ধতি চালু হয়।

প্রতিষ্ঠাকালের দিক থেকে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে এর অবস্থান নবম। ১৯৯০-৯১ শিক্ষাবর্ষে ৪ টি ডিসিপ্লিনে ৮০জন ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি করা হয়। বর্তমানে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে ৬টি স্কুল (অনুষদ) ও চারুকলা ইনস্টিটিউটের অধীনে মোট ২৮টি ডিসিপ্লিনে (বিভাগ) শিক্ষা ও গবেষণা কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। এ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে নিয়মিত ব্যাচেলর ডিগ্রি, ব্যাচেলর অব অনার্স ডিগ্রি, মাস্টার্স ডিগ্রি, এম ফিল, এবং পিএইচ ডি. প্রদান করা হয়।

khulna University 3

আগামী ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে মোট ডিসিপ্লিনের সংখ্যা দাঁড়াবে ৩২টি। এ সময় বর্তমান পাঁচ হাজার ছাত্রছাত্রীর সংখ্যা থেকে ১১ হাজার ৯৫ জনে উন্নীত হবে এবং শিক্ষক সংখ্যা ৩০০ থেকে বেড়ে হবে ৮২১ জন।

ভবিষ্যতে চালু হবে এডুকেশন ডিসিপ্লিন, ভেটেরেনারি অ্যান্ড অ্যানিমেল হাজবেন্ড্রি, মাইক্রোবায়োলজি, বায়োকেমিস্ট্রি, পাবলিক হেলথ, ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট, ড্রামা অ্যান্ড মিউজিক ডিসিপ্লিন এবং দুটি ইনস্টিটিউট ইনস্টিটিউট অব ইনফরমেশন অ্যান্ড কমিউনিকেশন টেকনোলজি (আইআইসিটি) এবং ইনস্টিটিউট অব কোস্টাল জোন অ্যান্ড ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট।

এন এম / এম এম

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে