আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > ময়মনসিংহ > নাতির সঙ্গে প্রাথমিক সমাপনি পরীক্ষা দিচ্ছেন ৬৫ বছর বয়সী নানি

নাতির সঙ্গে প্রাথমিক সমাপনি পরীক্ষা দিচ্ছেন ৬৫ বছর বয়সী নানি

নাতির সঙ্গে প্রাথমিক সমাপনি পরীক্ষা দিচ্ছেন ৬৫ বছর বয়সী নানি

প্রতিচ্ছবি ময়মনসিংহ প্রতিনিধি

ময়মনসিংহের ত্রিশালের সাউথকান্দা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে এবার প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনি পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছেন ৬৫ বছর বয়সী সুন্দরী বেগম।

নিরক্ষতার অভিশাপ থেকে মুক্ত হতেই নাতি জিহাদের সাথে পরীক্ষা দিচ্ছেন বলে জানান বৃদ্ধ নানি।

জানা যায়, ত্রিশালের হরিরামপুর সাউথকান্দা গ্রামের বর্গাচাষী কৃষক আবুল হোসেনের স্ত্রী সুন্দরী বেগম ৬৫ বছর আগে বাংলাদেশ  কৃষি ব্যাংক কাশিগঞ্জ শাখায় অ্যাকাউন্ট খুলতে যান। কোনো রকম স্বাক্ষর করতে শেখা সুন্দরী বেগম তিনটি স্বাক্ষরের মধ্যে একটি স্বাক্ষর ভুল করায় ব্যাংক ব্যবস্থাপক ফাইলটি সুন্দরী বেগমের সামনে ছুড়ে মারেন।

কেঁদে বাড়ি ফিরে তিনি প্রতিজ্ঞা করেন, যে কোনো মূল্যে নিরক্ষরতার অভিশাপ থেকে বেরিয়ে আসবেন। প্রতিজ্ঞাবদ্ধ সুন্দরী বেগম পরদিনই নাতি জিহাদকে নিয়ে সাউথকান্দা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গিয়ে প্রধান শিক্ষকের সঙ্গে কথা বলে প্রথম শ্রেণিতে ভর্তি হন। বাড়ির অন্যান্য কাজের পাশাপাশি প্রতিদিন নিয়মিত স্কুলে ক্লাস করতেন।

সাউথকান্দা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক আবদুস সালাম জানান, এ বয়সে লেখাপড়ায় মনোনিবেশ করে সুন্দরী বেগম নিরক্ষরতার অন্ধকার থেকে আলোর দিকে বেরিয়ে আসার দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। ৬ বছর পরিশ্রমের পর এ বছর তিনি নিজের নাতির সঙ্গে পিএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছেন।

সুন্দরী বেগমের চার ছেলে ও এক মেয়ের মধ্যে একজন সৌদিপ্রবাসী, দু’জন ভ্যানচালক। ছোট ছেলে সাইদুল ইসলামকে কষ্ট করে এইচএসসি পাস করিয়েছেন।

কাজী মোহাম্মদ মোস্তফা/ই এ/এ আর

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে