আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > ঢাকা > শিশু ভর্তিতে চটকদার বিজ্ঞাপনে ধোঁকাবাজি

শিশু ভর্তিতে চটকদার বিজ্ঞাপনে ধোঁকাবাজি

Print

গাজীপুর প্রতিনিধি:

ভর্তি প্রক্রিয়ার দু’পক্ষেই তুমুল প্রতিযোগিতা। একদিকে মানসম্মত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অভাবে অভিভাবকদের কপালে ভাঁজ। অন্যদিকে রঙিন লিফলেট, মাইকিংসহ চটকদার বিজ্ঞাপনের ফাঁদে ফেলে মানহীন স্কুলগুলোর চেষ্ঠা কতটা বাড়িয়ে নেবেন তাদের শিক্ষার্থী সংখ্যা। এ জন্য নানা উপায়ে আকৃষ্ট করা হচ্ছে ভর্তি উপযুক্ত শিশুদের অভিভাকদের। তবে এ নিয়ে নজর নেই সংশ্লিষ্ট শিক্ষা অফিসগুলোর।

নতুন শিক্ষাবর্ষ আসছে। শিক্ষার্থীদের ভর্তি প্রক্রিয়া শুরু করেছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষ। অভিভাবকগনও আগ্রহী তাদের সন্তানদের কোচিং কেন্দ্রিক কিন্ডারগার্টেনে ভর্তিতে। আর সবমিলে রাতারাতি গড়ে ওঠা এসব কিন্ডারগার্টেনগুলো হয়ে উঠছে রমরমা ব্যবসার প্রতিষ্ঠান।

এ নিয়ে ঢাকার গাজীপুরে অনুসন্ধানে দেখা যায়,  কোচিং নির্ভর, ব্যয়বহুল অধ্যয়নে ঝুঁকে পড়ছে অধিংকাশ অভিভাবক। চান্দনা চৌরাস্তা, সালনাসহ জেলার বিভিন্ন এলাকায় দেখাযায় এ কিন্ডারগার্টেনগুলো গড়ে উঠেছে। যেখানে নেই মাঠ। খেলাধুলার জন্য শিশুদের নেই ভালো সুবিধা। একই ভবনে দুই বিদ্যাপিঠ। এমনকি নেই পর্যাপ্ত আলো-বাতাসও।

আরো গুরুতর অভিযোগ গাজীপুরের বিভিন্ন কিন্ডারগার্টেনগুলোতে নিয়োগ পাওয়া অনেক শিক্ষকেরই যোগ্যতা মাধ্যমিকের (এসএসসি) গণ্ডি। তারাই কীনা এখানে গড়ছেন আগামীদের ভবিষ্যৎ।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক গাজীপুরের চান্দনা এলাকার হাতেখড়ি বিদ্যালয়ের একজন শিক্ষক বলেন, ‘নতুন বছর সামনে রেখে শিক্ষার্থী ভর্তি প্রক্রিয়ার নোংরা প্রতিযোগিতা চলছে। অথচ শিক্ষার মানের দিকে নজর রাখছে না কতক বিদ্যাপিঠ।’

তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করলেন গাজীপুর সদর উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা হারুন রশীদ। তিনি জানান, নিয়ম না মানা কিন্ডারগার্টেনগুলোতে প্রাথমিকের বিনামূল্যের বই দেয়া হচ্ছে না। শিক্ষা অফিস এ বিষয়ে কঠোর। প্রাথমিক শিক্ষা যেন ব্যবসা কেন্দ্রিক ও অযথা পরিক্ষা নির্ভর না হয় সেদিকেও নজর রাখছে।

হঠাৎ গজিয়েওঠা এসব কিন্ডারগার্টেনের চেয়ে প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর মান অনেক ভালো জানিয়ে গাজীপুর সদর উপজেলার ডগরী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা খুদিস্তা খাতুন বলেন, ‘সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোতে যত্নসহকারে পাঠদান হয়। মানা হয় কারিকুলাম। প্রত্যেক শিক্ষক অভিজ্ঞ, দক্ষ ও এবং সরকার কর্তৃক নিয়োগকৃত। তবে এরপরও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর চেয়ে কিন্ডারগার্টেন গুলোতে ভর্তি সংক্যা বাড়ছে।’

হাবিবুর রহমান / এম এম

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে