আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > আন্তর্জাতিক > রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমার-বাংলাদেশ চুক্তি

রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমার-বাংলাদেশ চুক্তি

রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমার-বাংলাদেশ চুক্তি

প্রতিচ্ছবি ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক:

নানা জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা ৬ লাখের বেশি রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে চুক্তি স্বাক্ষরিত হল।

বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সময় দুপুরে বহুল প্রতীক্ষিত এ চুক্তি সই হলেও এতে রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেওয়ার সময়সীমা উল্লেখ করা হয়নি। তবে আশা করা হচ্ছে আগামী দুই মাসের মধ্যেই রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন সম্পন্ন হবে। সংবাদ সংস্থা ইউএনবির খবরে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

mahmudali-suukyiবাংলাদেশের পক্ষ থেকে এই চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলী ও সু চির কার্যালয়ের মন্ত্রী কিয়াও টিন্ট। সু চির কার্যালয়ের মন্ত্রী বলেন, “খুব শীঘ্র আমরা রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে প্রস্তুত, তবে প্রত্যাবাসনের আগে প্রত্যেকের ব্যাক্তিগত সকল তথ্য যাচাই করা হবে।”

এর আগে বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় সকাল ১০টায় মিয়ানমারের রাজধানী নেইপিদোতে সু চি’র কার্যালয়ে অং সান সু চির সঙ্গে বৈঠক করেছেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলী। বুধবার রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের ব্যাপারে মিয়ানমারের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা কিয়াও টিন্ট সুয়ের সঙ্গে বৈঠক করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলী।

২৫ আগস্টের পর থেকে এখন পর্যন্ত পালিয়ে বাংলাদেশে এসে আশ্রয় নিয়েছে ছয় লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা। রাখাইনের বিভিন্ন পুলিশ চৌকিতে রোহিঙ্গা বিদ্রোহীদের হামলার জের ধরে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করে মিয়ানমার সেনাবাহিনী। তাদের বিরুদ্ধে রোহিঙ্গা নারীদের ধর্ষণ, শিশু হত্যা, রোহিঙ্গা বসতিতে অগ্নিসংযোগসহ গণহত্যার অভিযোগ ওঠে। এ প্রেক্ষিতে রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে আন্তজার্তিক চাপের মুখে পড়েন দেশটির নেত্রী অং সান সু চি।

এন টি

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে