আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > জাতীয় > নিরাপত্তার চাদরে মোড়া সোহরাওয়ার্দী উদ্যান

নিরাপত্তার চাদরে মোড়া সোহরাওয়ার্দী উদ্যান

নিরাপত্তার চাদরে ঘেরা সোহরাওয়ার্দী উদ্যান

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ভাষণ ইউনেস্কোর বিশ্ব ঐতিহ্যের দলিল হিসেবে স্বীকৃতি অর্জন করায় সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে নাগরিক সমাবেশের আয়োজন করেছে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট।

বিশিষ্ট নাগরিকদের উদ্যাগে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া এই সমাবেশকে সফল করতে ইতোমধ্যে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। সমাবেশ ঘিরে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী।

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে শনিবার বেলা আড়াইটা থেকে পাঁচটা পর্যন্ত চলবে এ নাগরিক সমাবেশ। নাগরিক কমিটির পাশাপাশি সহায়ক হিসেবে সকল ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগও।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, নাগরিক সমাবেশ নামের এ অনুষ্ঠানের আয়োজক সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট হলেও প্রকারান্তরে এটি ক্ষমতাসীন দলের শোডাউনে পরিণত হবে। এজন্য ব্যাপক জনসমাগম নিশ্চিত করতে বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীদের কাছে বার্তাও পাঠিয়েছে আওয়ামী লীগ।

700x336

সমাবেশকে কেন্দ্র করে কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েছে ডিএমপি’র বিভিন্ন ইউনিটের সদস্য, আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন, র‍্যাব ও এসএসএফসহ বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা।

ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) সূত্রে জানা গেছে, সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের সবগুলো প্রবেশমুখে তল্লাশি করা হবে। বসানো হয়েছে আর্চওয়ে। আর্চওয়ের ভেতর দিয়ে ঢুকতে হবে সবাইকে। বসানো হয়েছে মেটাল ডিটেক্টর। সমাবেশের মূল মঞ্চের সামনে বাঁশ দিয়ে নিরাপত্তাবেস্টনি তৈরি করা হয়েছে। বেস্টনির ভেতরে প্রবেশের ক্ষেত্রে তল্লাশিতে নিরাপত্তা যন্ত্র বসানো হয়েছে।

প্রবেশপথ ছাড়াও প্রত্যেকটি গেটে মোতায়েন করা হয়েছে বিপুল সংখ্যক পুলিশ, র্যাব ও আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন সদস্য। সোহরাওয়ার্দী উদ্যান এলাকা ও এর আশপাশ এলাকার প্রবেশ পথগুলোতে চেকপোস্ট বসানো হয়েছে। কঠোর অবস্থানে রয়েছে ট্রাফিক বিভাগ।

ডিএমপি’র রমনা বিভাগের উপ-কমিশনার(ডিসি) মারুফ হোসেন সরদার বলেন, সমাবেশের নিরাপত্তা ও আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিশ্চিত করতে কেন্দ্রীয়ভাবে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। ডিএমপি এটি সরাসরি মনিটর করছে।

ডিএমপি’র মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের উপ-কমিশনার(ডিসি) মো. মাসুদুর রহমান বলেন, সমাবেশকে ঘিরে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে পর্যাপ্ত পুলিশ সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে পর্যাপ্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। ট্রাফিক শৃঙ্খলা বজায় রাখতে কাজ করছে ট্রাফিক বিভাগ।

শনিবার সকালে সরেজমিনে দেখা গেছে, সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে নির্বাচনী প্রতীক নৌকার আদলে মূল মঞ্চ সাজানোসহ পুরো এলাকার সৌন্দর্য বৃদ্ধি করা হয়েছে।

সমাবেশ আয়োজনে ইতোমধ্যে সব ধরনের প্রস্তুতি নিয়েছে নাগরিক কমিটি। রাজধানীর মূল সড়কসহ বিভিন্ন অলিগলিতে সাজানো হয়েছে ডিজিটাল ব্যানার। সমাবেশ স্থলের আশপাশের এলাকায় রয়েছে আলোকসজ্জা।

ই এ/এ আর

৭ মার্চের ভাষণকে স্বীকৃতি উদযাপনে নাগরিক সমাবেশ আজ

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে