আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > রাজনীতি > বিচার বিভাগের ভাবমূর্তি-মর্যাদা-সম্মানে এটি কলঙ্কের দিন: মওদুদ

বিচার বিভাগের ভাবমূর্তি-মর্যাদা-সম্মানে এটি কলঙ্কের দিন: মওদুদ

moudud-ahmed

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক:

সরকার ‘জোর করে’ প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহাকে পদত্যাগ করিয়েছে, যাতে জাতি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি নেতা মওদুদ আহমদ। একই সঙ্গে দিনটি বিচার বিভাগের ভাবমূর্তি-মর্যাদা-সম্মানে কলঙ্কের দিন বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

বিদেশ থেকে পাঠানো বিচারপতি সিনহার পদত্যাগপত্র পাওয়ার খবর শনিবার বঙ্গভবন নিশ্চিত করার পর এক আলোচনা সভায় এই অভিযোগ করেন দলটির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য।

মওদুদ বলেন, ‘সরকার তার (প্রধান বিচারপতি) বিরুদ্ধে ১১টি মামলা দায়ের করেছে। এটা থেকে বোঝা যাচ্ছে, জোর করে তাকে পদত্যাগ করানো হয়েছে।’

সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনীর রায় বাতিলের পর ক্ষমতাসীনদের তোপের মুখে বিচারপতি সিনহা ছুটি নিয়ে বিদেশ যাওয়ার পরও বিএনপি বলেছিল, তাকে ‘জোর করে ছুটি দিয়ে’ বিদেশ পাঠানো হয়েছে।

এখন একই অভিযোগ করার প্রতিক্রিয়ায় আইনমন্ত্রী আনিসুল হক একে ‘অবাস্তব’ আখ্যায়িত করে বলেন, ‘বিদেশ থেকে তিনি (পদত্যাগ)পত্র পাঠিয়েছেন, সেখানে আমরা তাকে জোর করব কোত্থেকে? বিদেশে তো আমরা পিস কিপিং ফোর্স পাঠাইনি…পাঠিয়েছি? সুতরাং এগুলো হচ্ছে অবাস্তব বক্তব্য।’

রায়ে ক্ষুব্ধ হয়ে সরকার নিয়ম অনুযায়ী রিভিউ আবেদন না করে প্রধানমন্ত্রী থেকে শুরু করে মন্ত্রী ও অন্যান্য নেতারা যেভাবে প্রধান বিচারপতিকে আক্রমণ করেছে, তার সমালোচনা করেন সাবেক আইনমন্ত্রী মওদুদ।

বিচারপতি সিনহার পদত্যাগে গোটা জাতি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে তার মন্তব্য।  তার ভাষায়, ‘এটা (প্রধান বিচারপতির পদত্যাগ) এই জাতির জন্য, বিচার বিভাগের স্বাধীনতার জন্য, বিচার বিভাগের ভাবমূর্তি-মর্যাদা-সম্মানের জন্য একটি কলঙ্কের দিন হয়ে থাকবে।’

জাতীয় প্রেস ক্লাবে জাতীয়তাবাদী সাংস্কৃতিক দলের উদ্যোগে ‘রাজনৈতিক সঙ্কট উত্তরণে নিরপেক্ষ নির্বাচনের বিকল্প নেই’ শীর্ষক আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন মওদুদ।

প্রেস ক্লাবে আরেক আলোচনা সভায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্য খন্দকার মাহবুব হোসেনও একই অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন, “তাকে জোর করে অসুস্থ বানিয়ে ছুটি দেওয়া হয়েছিল। সরকার আজকে প্রধান বিচারপতিকে দেশে ফিরতে না দিয়ে জোর করে পদত্যাগে বাধ্য করে।

“এর চেয়ে দুর্ভাগ্যজনক, লজ্জাজনক, ন্যক্কারজনক কাজ আর কিছু হতে পারে না। দেশের সর্বাচ্চ বিচারালয়ে এই ধরনের নগ্ন হামলা কেউ গ্রহণ করতে পারে না। আমরা এহেন ঘটনার নিন্দা জানাই।”

বিচার বিভাগের উপর ‘নিয়ন্ত্রণ’ প্রতিষ্ঠিত করতে প্রধান বিচারপতিকে পদত্যাগ করতে বাধ্য করা করেছে বলে দাবি করেন তিনি।

এম এম

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে