আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > ফ্যাশন এন্ড বিউটি > ফ্যাশনে প্রাকৃতিকভাবে চুলের রঙ

ফ্যাশনে প্রাকৃতিকভাবে চুলের রঙ

প্রতিচ্ছবি ডেস্ক:

মেহেদি দিয়ে কেশ রাঙানো সবচেয়ে প্রচলিত পদ্ধতি। এছাড়া অন্যান্য প্রাকৃতিক উপাদান দিয়েও পাকাকেশ ঢেকে ফেলা যায়।

দুশ্চিন্তা, কাজের চাপ অথবা বয়স যে কোনো কারণেই চুল পাকতে পারে। তবে চুল রাঙাতে বাজারে সবচেয়ে বেশি বিক্রি হওয়া ‘ডাই’তেও থাকে রাসায়নিক পদার্থ। যা চুলের জন্য ক্ষতিকর।

তাই প্রাকৃতিক উপাদান ব্যবহার করা নিরাপদ।

মেহেদি: সবচেয়ে প্রচলিত পন্থা। এটা শুধু চুল রাঙায় না, আনে প্রাকৃতিক উজ্জ্বলতা ও ঘনত্ব।

তেলের রং মেহেদির রং হওয়া পর্যন্ত ক্যাস্টর অয়েল এবং মেহেদি পাতা একসঙ্গে ফুটান। তারপর তেলটি ঠাণ্ডা করে চুলের গোড়া ও পাকাচুলে লাগান। দুই ঘন্টা অপেক্ষা করে শিকাকাই সমৃদ্ধ মৃদু শ্যাম্পু দিয়ে চুল পরিষ্কার করে নিন।

 কফি: পাকাচুল রং করতে কফি খুব ভালো কাজ করে। এরজন্য বেশ কড়া করে কফি তৈরি করতে হবে।

গরম পানিতে কফি ফুটিয়ে নিন। যেন চুলের রংয়ের কাছাকাছি হয় সেদিকে খেয়াল রাখবেন।

কফি কুসুম গরম থাকা অবস্থায় একটি স্প্রে বোতলে ভরে নিন। তারপর চুল ও চুলের গোড়ায় স্প্রে করুন। এরপর ভালোভাবে মালিশ করে ‘শাওয়ার ক্যাপ’য়ের সাহায্যে চুল ঢেকে এক ঘণ্টা অপেক্ষা করে ধুয়ে ফেলুন।

গোসলের সময় এটা ব্যবহার করা ভালো। এতে পোশাক নষ্ট হওয়ার সম্ভাবনা কম থাকে।

 ব্ল্যাক টি: কফির মতো ব্ল্যাক টি প্রাকৃতিকভাবে চুল রং করতে সাহায্য করে। তবে খেয়াল রাখতে হবে চায়ের লিকারটা যেন গাঢ় হয় এবং তাপমাত্রা যেন সাধারণ থাকে বা চুলে লাগানোর আগে সামান্য গরম থাকে।

কমপক্ষে এক ঘণ্টা অপেক্ষা করে চুল ধুয়ে নিন।

 আখরোটের খোসা: আখরোটের খোসা চুলে গাঢ় বাদামি রং করতে সাহায্য করে। তবে অসাবধানতায় এটা কাপড় ও ত্বকেও দাগ ফেলতে পারে।

প্রথমে আখরোটের খোসা গুঁড়া করে ৩০ মিনিট পানিতে ফুটিয়ে নিন। তারপর ঠাণ্ডা হয়ে এলে চুলের গোড়া ও চুলে লাগান। চাইলে তুলার বলের সাহায্য নিতে পারেন।

এক ঘণ্টা অপেক্ষা করে চুল ভালোভাবে পরিষ্কার করে নিন।

লেবুর রস:

লেবু প্রাকৃতিক ব্লিচ। স্বর্ণকেশী চুলের জন্য লেবুর রস সরাসরি লাগিয়ে ২-৩ ঘণ্টা রাখুন। লেবুর রস মেখে রোদে চুল শুকাতে পারলে রঙের পরিবর্তন চোখে পড়বে। খুব জলদি ন্যাচারাল ব্লন্ড কালার (সোনালি) পেতে লেবুর রসের সঙ্গে ক্যামোমাইল চায়ের লিকার দিয়ে নিলে ভালো হবে। তবে চুল ব্লিচ করার ক্ষেত্রে লেবুর রস একটু ধীরগতিতে কাজ করে। তাই মনমতো রঙ না আসা পর্যন্ত বেশ কয়েকবার ব্যবহার করতে হতে পারে।

দারুচিনি ও লবঙ্গ:

চুলে গাঢ় বাদামী রং করতে চাইলে দারুচিনি ও লবঙ্গ ব্যবহার করুন। এক চা চামচ দারুচিনি ও এক চা চামচ লবঙ্গ একসঙ্গে চুলায় পানির মধ্যে গরম করুন। এক ঘণ্টা পর চুলা থেকে নামিয়ে ঠান্ডা করুন। শ্যাম্পু করার পর এই পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। ২০ মিনিট পর সাধারণ পানি দিয়ে চুল ধুয়ে নিন।

এ এম/ এন টি

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে