আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > জাতীয় > ঢামেকে চিকিৎসকদের আন্দোলন অব্যাহত, রোগীদের দুর্ভোগ চরমে

ঢামেকে চিকিৎসকদের আন্দোলন অব্যাহত, রোগীদের দুর্ভোগ চরমে

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক:

নিরাপত্তা নিশ্চিত না  হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন অব্যাহত রাখার হুঁশিয়ারি দিয়ে বিক্ষোভ চালিয়ে যাচ্ছেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের শিক্ষানবিশ চিকিৎসকরা।  এতে চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন নতুন রোগীরা। এছাড়া আগে থেকেই ভর্তি হওয়া রোগীরা পড়েছেন চরম দুর্ভোগে।

মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজের সামনে সাংবাদিকদের আলাপকালে আন্দোলন অব্যাহত রাখার কথা বলেন শিক্ষানবিশ চিকিৎসকদের সংগঠনের সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তাক। তবে রোগীদের কথা মাথায় রেখে হাসপাতালের জরুরি চিকিৎসা সেবা চালু রাখা হয়েছে বলে জানান তিনি।

তিনি বলেন, চিকিৎসকদের ওপর হামলার প্রতিবাদে আমাদের এই বিক্ষোভ কর্মসূচি। চিকিৎসকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত আমাদের এই আন্দোলন চলবে।

তিনি আরো বলেন, আমাদের শিক্ষানবিশ চিকিৎসকরা রোহিঙ্গাদের সাস্থ্য সেবায় জন্য কাজ করেছে। চিকিৎসকরা রোগীর জীবন বাঁচানোর জন্য চিকিৎসা দেয়। অথচ আমাদের ওপর হামলা হচ্ছে, এটা মেনে নেওয়া যায় না। আমাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতেই হবে।

ঢামেকে চিকিৎসকদের আন্দোলন অব্যাহত, রোগীদের দুর্ভোগ চরমে [২]

নিরাপত্তাসহ বিভিন্ন দাবিতে মঙ্গলবার সকাল ১০টা থেকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বহির্বিভাগের গেট বন্ধ করে অবস্থান নিয়েছেন ইন্টার্ন চিকিৎসকরা। অবস্থান নিয়ে তারা বিক্ষোভ করছেন। এছাড়া তারা নতুন ভবনের নিউরোমেডিসিন ও ফিজিক্যাল মেডিসিন বিভাগের রোগী দেখার টিকিট (আউটডোর) বিক্রি বন্ধ করে দিয়েছেন।

এ সময় দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা রোগীরা চিকিৎসা সেবা না পেয়ে বিভিন্ন দিকে ছুটোছুটি ও চিকিৎসকদের শরণাপন্ন হন। কয়েকজনকে জ্ঞান হারিয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়তে দেখা যায়। পরে কর্মসূচির স্থানেই তাদের চিকিৎসা সেবা দেন বিক্ষোভরত ডাক্তাররা।

উল্লেখ্য, রোববার ঢামেক হাসপাতালের নতুন ভবনের তৃতীয় তলায় এক রোগীর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে রোগীর স্বজন ও বহিরাগত কিছু ব্যক্তি হৃদরোগ বিভাগে প্রবেশ করে চিকিৎসকদের মারধর করে। এ সময় দায়িত্বরত আনসার সদস্যরা এগিয়ে এলে তাদেরও মারধর করা হয়। এতে চার চিকিৎসক ও দুই আনসার সদস্য আহত হন।

ই এ/এ আর

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে