আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > খেলাধুলা > টাইগারদের বিবর্ণ বোলিংয়ে ছুটছে প্রোটিয়াদের রানরথ

টাইগারদের বিবর্ণ বোলিংয়ে ছুটছে প্রোটিয়াদের রানরথ

বিবর্ণ বোলিং সেশনের পর মিরাজের জোড়া আঘাতের পর কিছুক্ষণের জন্য ম্যাচে ফিরার স্বপ্ন দেখেছে টাইগাররা। তবে মাশরাফিদের সে স্বপ্ন ভঙ্গকরে করে আবারও ঘুরে দাঁড়িয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

প্রতিচ্ছবি ক্রীড়া ডেস্ক:

বিবর্ণ বোলিং; মাঝে কেবল মিরাজের জোড়া আঘাত। এছাড়া পুরোটাই প্রোটিয়াদের ব্যাটিং প্রাকটিস। টাইগার বোলারদের ফের সাধারণ মানে নামিয়ে এনে তৃতীয় ওয়ানডেতে তুলোধুনো করছেন স্বাগতিক ব্যাটসম্যানরা। ফাফ ডু প্লেসিস ও অ্যাইডেন মারক্রামের আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ে দুই উইকেটে ২৮৩ পার করে বড় সংগ্রহের পথে রয়েছে প্রোটিয়ারা।

একইসঙ্গে মারমুখী ক্রিকেট খেলে ৪৩ বলে আসে তার অর্ধশতক আদায় করে নিয়েছেন ডু প্লেসিস। অন্যদিকে সঙ্গী মারক্রামও পেয়েছেন অর্ধশতক।  এই দুই ব্যাটসম্যানের বদৌলতে ৪০.১ ওভার শেষে ২ উইকেটে ২৮৩ রান করেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। ডু প্লেসিস ৯১ আর মারক্রাম ৬৫ রানে ক্রিজে রয়েছেন।

এর আগে ইস্ট লন্ডন মাঠে অন্তত একটা ম্যাচ জেতার আশায় মাঠে নামে টাইগার বাহিনী। শুরুর দিকে টস হেরে ফিল্ডিংয়ে নামা বাংলাদেশের বোলারদের ভালোই পিটিয়েছেন প্রোটিয়া দুই ওপেনার কুইন্টন ডি কক ও টিম্বা বাভুমা।

তবে ১১৯ রানের মাথায় ৪৭ বলে ৪৮ করা বাভুমাকে ফিরিয়ে দেন মেহেদী হাসান মিরাজ। পরে ১৩২ রানের মাথায় সেই মিরাজের হাতেই আউট হয়ে ফেরেন অপর ওপেনার ৬৮ বলে ৭৩ রান করা কুইন্টন ডি কক।

এর পর ক্রমে ক্রমে মাঠে নামে ডু প্লেসিস ও মারক্রাম। প্রথমে তাঁরা অনেকটাই সতর্কতার সাথে ব্যাটিং করলেও টাইগারদের নিষ্প্রাণ বোলিংএর কারণে ঝড়ো গতির সূচনা করেন ডু প্লেসিস ও মারক্রাম।

প্রোটিয়া সফরটা খুব খারাপ কাটছে বাংলাদেশের। দুই টেস্ট, দুই ওয়ানডেতে টাইগারদের বাজে হার কিছুতেই মন থেকে সরছে না। তার ওপর ইনজুরির ছোবল, আরও বেশি কাহিল করে দিয়েছে টিম টাইগার্সকে। দলের দুই ‘সেরা’-বোলিংয়ে মোস্তাফিজুর রহমান আর ব্যাটিংয়ে তামিম ইকবালকে ছাড়াই আজ শেষ ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার মুখোমুখি বাংলাদেশ।

তামিমের বদলে একাদশে এসেছেন সৌম্য সরকার। আর নাসির হোসেনের জায়গায় একাদশে এসেছেন আরেক অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার মেহেদী হাসান মিরাজ। অপরদিকে হাশিম আমলার জায়গায় ওয়ানডে অভিষেক হয়েছে এইডেন মারক্রামের। কুইন্টন ডি ককের সঙ্গে ওপেন করবেন টেম্বা বাভুমা। জেপি ডুমিনির বদলে ১১ জনে নাম লেখালেন বাভুমা। দলে এসেছেন তরুণ অলরাউন্ডার উইয়ান মাল্ডারও। বাদ পড়েছেন ডোয়াইন প্রিটোরিয়াস।

বাংলাদেশ একাদশ:

ইমরুল কায়েস, সৌম্য সরকার, মাশরাফি বিন মুর্তজা, মাহমুদউল্লাহ, সাব্বির রহমান, মুশফিকুর রহিম, মেহেদী হাসান মিরাজ, সাকিব আল হাসান, লিটন দাস, রুবেল হোসেন ও তাসকিন আহমেদ।

দক্ষিণ আফ্রিকা একাদশ:

কুইন্টন ডি কক, এইডেন মারক্রাম, ফাফ দু প্লেসি, এবি ডি ভিলিয়ার্স, ফারহান বেহারদিয়েন, তেম্বা বাভুমা, ওয়াইান মুল্ডার, অ্যান্ডিল ফেলুকায়ো, কাগিসো রাবাদা, ডেন প্যাটারসন, ইমরান তাহির।

এসএম

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে