আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > খেলাধুলা > অধিনায়ক মাশরাফির রেকর্ডের দিনে আফ্রিকার উড়ন্ত সূচনা

অধিনায়ক মাশরাফির রেকর্ডের দিনে আফ্রিকার উড়ন্ত সূচনা

মাশরাফি বিন মর্তুজা

প্রতিচ্ছবি ক্রীড়া প্রতিবেদক:

বাংলাদেশের দু্‌ই দশকের ওয়ানডে ইতিহাসে বাংলাদেশের হয়ে ৫০ বা ততোধিক ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়েছেন কেবল হাবিবুল বাশার ও সাকিব আল হাসান। আজ দ্বিতীয় অধিনায়ক হিসেবে সে রেকর্ড স্পর্শ করলেন মাশরাফি বিন মর্তুজা।

নিজের রেকর্ডের দিনে টস হেরে আগে ফিল্ডিংয়ে নামতে হয়েছে। ব্যাট হাতে দুরন্ত গতিতে রানের ফোয়াড়া ছোটাচ্ছেন দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যাটসম্যানরা। টি২০ ঢংয়ে মাত্র ১৬ ওভারে তুলে নিয়েছেন ১১২ রান। বাভুমা ৪৪ ও ব্যাট করছেন ডি কক ৬৬ রানে।

এর আগের দুই অধিনায়ক বাশার ৬৯টি ও সাকিব ৫০টি ওয়ানডেতে টাইগারদের নেতৃত্ব দিয়েছেন। তওেব সবার চেয়ে ম্যাশের রেকর্ড ভালো। আজকেল চলমান ম্যাচটি বাদ দিয়ে এখন পর্যন্ত ৪৯টি ওয়ানডেতে নেতৃত্ব দিয়ে বাংলাদেশকে ২৭ জয় ও ২০ হারের স্বাদ দিয়েছেন ম্যাশ। বাংলাদেশের অধিনায়কদের মধ্যে শতকরা জয়ের দিক দিয়েও সবার চেয়ে এগিয়ে মাশরাফি।

২০১০ সালে ওয়ানডেতে অধিনায়ক হিসেবে অভিষেক ঘটে মাশরাফির। ব্রিস্টলে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৫ রানের ঐতিহাসিক জয়টি এসেছিলো ম্যাশের নেতৃত্বেই। ওই ম্যাচের সেরাও ছিলেন তিনি।

আট নম্বরে ব্যাট হাতে নেমে ২৫ বলে ২২ রান করার পাশাপাশি বল হাতে ৪২ রানে ২ উইকেট নেন তিনি।
তবে ইনজুরি পিছু ছাড়েনি মাশরাফির। ঢাকায় নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে পায়ের ইনজুরিতে পড়েন ম্যাশ। ফলে দীর্ঘদিনের জন্য মাঠের বাইরে চলে যান তিনি।

তবে ২০১৪ সালে ওয়ানডে অধিনায়কের পদ থেকে মুশফিকুর রহিমকে সরিয়ে মাশরাফির হাতে আবারো নেতৃত্ব তুলে দেয় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

এরপর বাংলাদেশকে সাফল্যের জোয়াড়ে ভাসিয়েছেন মাশরাফি। ২০১৫ বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে খেলে বাংলাদেশ। প্রথমবারের মত বিশ্বকাপের শেষ আটে খেলার পর দেশের মাটিতে ভারত-পাকিস্তান-দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ জয় করে মাশরাফির নেতৃত্বধীন দলটি। ভারত, দক্ষিণ আফ্রিকাকে না পারলেও পাকিস্তানকে তিন ম্যাচের সিরিজে হোয়াইওয়াশ করে বাংলাদেশ। এমন দুর্দান্ত সব অর্জনে সরাসরি আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে খেলার ছাড়পত্র পায় টাইগাররা।

এরপর চলতি বছর চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির সেমিফাইনালেও উঠে মাশরাফির নেতৃত্বাধীন দলটি। মাঝে র‌্যাংকিং-এ নয় নম্বর থেকে ছয় নম্বরে থাকার স্বাদও নিয়েছে বাংলাদেশ।

এম এম

 

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে