আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > রাজনীতি > আ’লীগের প্রস্তাব নির্বাচনে সহায়ক নয়, জনমত পালটে দেয়ার কৌশল: বিএনপি

আ’লীগের প্রস্তাব নির্বাচনে সহায়ক নয়, জনমত পালটে দেয়ার কৌশল: বিএনপি

আ’লীগের প্রস্তাব নির্বাচনে সহায়ক নয়, জনমত পালটে দেয়ার কৌশল: বিএনপি

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক:

আগামী জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে নির্বাচন কমিশনের সাথে সংলাপে আওয়ামী লীগের উপস্থাপন করা ১১ দফা প্রস্তাবনা ‘সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য সহায়ক নয় বরং জনমত পাল্টে দেয়ার কৌশল’ বলে মনে করে বিএনপি।

শুক্রবার রাজধানীর নয়া পল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

তিনি বলেন, ‘নির্বাচন কমিশনে আওয়ামী লীগ যে ১১ দফা প্রস্তাব দিয়েছে, তা গণতন্ত্র ও সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য সহায়ক নয়। কীভাবে নির্বাচনকে নিয়ন্ত্রণ করা যায়, কিভাবে নির্বাচন পর্যবেক্ষক ও গণমাধ্যমকে নিয়ন্ত্রণ করা যায়, কিভাবে ভোটের ফল পাল্টে দেওয়া যায়- সেই কৌশলই ওই সব প্রস্তাবনায় আছে, যা সম্পূর্ণরূপে জনমতের বিপরীত।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমরা মনে করি, স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য প্রধান বাধা। জনগণের দাবি নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকার। এর বিরোধিতা করে ক্ষমতাসীন দল আগামী সংসদ নির্বাচন নিয়ে জনগণের কাছে কোনো শুভ বার্তা দেয়নি।’

গত ১৮ অক্টোবর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের নেতৃত্বে ২১ সদস্যের প্রতিনিধিদল নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে সংলাপে অংশ নিয়ে ১১ দফা প্রস্তাব দেয়। এতে দলটি একাদশ সংসদ নির্বাচনে ইভিএম চালু, সংসদীয় আসনে সীমানা পুনর্নির্ধারণের বিরোধিতার পাশাপাশি ভোটের আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় ‘১৮৯৮ সালের ফৌজধারী কার্যবিধি অনুযায়ী’ সেনা মোতায়েনের প্রস্তাব রাখে।

আওয়ামী লীগ এসব প্রস্তাবকে ভোটের ফল পাল্টে দেওয়ার কৌশল হিসেবে দেখলেও নির্বাচন কমিশন সাংবিধানিকভাবে স্বাধীন স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠান হওয়ায় তারা নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে পারে বলে মনে করেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রিজভী।

গত ১৮ অক্টোবর দেশে ফেরা বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সংবর্ধনায় ব্যাপক লোক সমাগমে নেতাকর্মী ও সর্বস্তরের জনগণকে ধন্যবাদ ও অভিনন্দন জানান রিজভী। একসঙ্গে নানা প্রতিকূলতার মধ্যে সঠিকভাবে সংবাদ সংগ্রহ ও প্রচারের জন্য গণমাধ্যমের প্রতিও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে- বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এজেডএ জাহিদ হোসেন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য আবদুস সালাম, কেন্দ্রীয় নেতা সানাউল্লাহ মিয়া, মাসুদ আহমেদ তালুকদার, হাবিবুল ইসলাম হাবিব, মীর সরফত আলী সপু উপস্থিত ছিলেন।

এ আর

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে