আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > আন্তর্জাতিক > ইউনেস্কো থেকে বের হয়ে যাওয়ার ঘোষণা যুক্তরাষ্ট্র ও ইসরায়েলের

ইউনেস্কো থেকে বের হয়ে যাওয়ার ঘোষণা যুক্তরাষ্ট্র ও ইসরায়েলের

ইউনেস্কো থেকে বের হয়ে যাওয়ার ঘোষণা যুক্তরাষ্ট্র ও ইসরায়েলের

প্রতিচ্ছবি ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক:

জাতিসংঘের শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি বিষয়ক সংস্থা ইউনেস্কো থেকে বের হয়ে যাবার ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ও ইসরায়েল। এক বিবৃতিতে ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গী হওয়ার ঘোষণা দেন বলে জানিয়েছে বিবিসি।

 ইউনেস্কো-তে ইসরাইল-বিরোধী পক্ষপাত আছে, এই অভিযোগ তুলে ওই সংস্থা থেকে নিজেদের প্রত্যাহার করে নিচ্ছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আরও বলেছে, ইউনেস্কোতে আর্থিক ঘাটতি যেভাবে বাড়ছে তা নিয়েও তারা চিন্তিত এবং ওই সংস্থায় আমূল সংস্কার প্রয়োজন।

যুক্তরাষ্ট্র ঘোষণা দেয়ার কয়েক ঘন্টা পর ইসরায়েলও এক বিবৃতিতে সংস্থাটি থেকে বিদায় নেবে বলে জানায়। এ খবর দিয়েছে আলজাজিরা। খবরে বলা হয়, ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনইয়ামিন নেতানিয়াহুর কার্যালয় থেকে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে যুক্তরাষ্ট্রের ইউনেস্কো থেকে বের হয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্তকে ‘সাহসী ও নীতিগত’ বলে আখ্যায়িত করা হয়। পাশাপাশি ইউনেস্কো ‘হাস্যকর এক থিয়েটারে’ পরিণত হচ্ছে বলেও অভিযোগ তোলা হয়। বিবৃতিতে বলা হয়, ‘যুক্তরাষ্ট্রের পাশাপাশি ইউনেস্কো থেকে ইসরায়েলের বিদায়ের জন্যে প্রধানমন্ত্রী পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে প্রস্তুতি গ্রহণ করতে বলেছেন।’

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ২০১৮-র ৩১ ডিসেম্বর থেকে তাদের ইউনেস্কো ছাড়ার সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে। সে পর্যন্ত সংস্থার সব ধরনের কাজে আগের মতই অংশ নেবে তারা।

যুক্তরাষ্ট্রের ইউনেস্কো ছাড়ার এ সিদ্ধান্তে গভীর দুঃখ প্রকাশ করেছেন সংস্থাটির মহাপরিচালক ইরিনা বোকোভা।

এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, “মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসনের কাছ থেকে সরকারি নোটিশ পাওয়ার পর ইউনেস্কোর মহাপরিচালক হিসাবে আমি যুক্তরাষ্ট্রের ইউনেস্কো থেকে বের হয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্তের জন্য গভীর দুঃখ প্রকাশ করছি।”

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, ইউনেস্কোতে প্রতিনিধিত্ব করার জন্য তারা একটি পর্যবেক্ষণ মিশন প্রতিষ্ঠা করবে। যার মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্র ইউনেস্কোর সদস্য না হয়েও সংগঠনটির বিভিন্ন বিষয়ে অবদান রাখতে পারবে।

ইউনেস্কোর কয়েকটি সিদ্ধান্ত যুক্তরাষ্ট্র এবং ইসরায়েলের কাছ থেকে সমালোচনার শিকার হয়। সেসবের প্রেক্ষাপটেই যুক্তরাষ্ট্র এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে ধারণা বিবিসির।

এন টি

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে