আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > ঢাকা > প্রধানমন্ত্রীকে সংবর্ধনা, তীব্র যানজটের কবলে রাজধানী

প্রধানমন্ত্রীকে সংবর্ধনা, তীব্র যানজটের কবলে রাজধানী

untitled-2

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক:

প্রধানমন্ত্রীকে সংবর্ধনা দিতে রাস্তায় নেমেছেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। ফলে রাজধানীতে তীব্র যানজট সৃষ্টি হয়েছে। শনিবার সকাল থেকেই বিমানবন্দর থেকে গণভবন পর্যন্ত রাস্তায় আসতে থাকেন নেতাকর্মীরা, ফলে রাস্তায় বাড়তে থাকে যানজট।

রাজধানীর মহাখালী, বিজয় স্বরণী, ফার্মগেট, বাংলামোটরসহ কয়েকটি পয়েন্টে ব্যাপক যানজট লক্ষ করা গেছে। আর এর প্রভাব পড়েছে রাজধানীর অন্যান্য এলাকাতেও।

সকাল ৮টা থেকেই যানবাহন চলাচল স্থবির হয়ে পড়ে। আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মিছিল আসায় বাংলামোটর থেকে বিজয় স্বরণী, ফার্মগেট থেকে খামাড়বাড়ি হয়ে মানিক মিয়া এভিনিউ পর্যন্ত পুরো রাস্তাতেই যানজট রয়েছে। এ ছাড়া খামারবাড়ি থেকে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্র ও বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন থেকে বিজয় স্বরণী পর্যন্ত যান চলাচল স্থবির হয়ে রয়েছে।

গত ২৫ আগস্ট থেকে মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে দেশটির সেনাবাহিনী ও স্থানীয় বৌদ্ধদের হামলার শিকার হয়ে এ পর্যন্ত ৫ লাখের বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। নানা সমালোচনা উপেক্ষা করে প্রধানমন্ত্রী মানবিক কারণে তাদের বাংলাদেশে আশ্রয় দেন। এমনকি তিনি রোহিঙ্গাদের আশ্রয় শিবির পরিদর্শন করেন। সেইসঙ্গে রোহিঙ্গাদের নিরাপদে দেশে ফেরত পাঠানোর আগ পর্যন্ত বাংলাদেশে থাকার নিশ্চয়তা দেন তিনি। সম্প্রতি জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনেও রোহিঙ্গাদের অধিকার নিয়ে বক্তব্য দিয়েছেন শেখ হাসিনা।

রোহিঙ্গা ইস্যুতে তার এই ভূমিকা তথা মানবিকতা দেশে হতবাক হয়েছে বিশ্ববাসী। বিশ্বব্যাপী শরণার্থী সমস্যা মোকাবিলায় যখন বড় বড় নেতারা হিমশিম খাচ্ছেন তখন বাংলাদেশের মতো একটি ছোট দেশ ৫ লাখের বেশি শরণার্থীকে আশ্রয় দিয়ে যে যোগ্যতার তথা মানবিকতার প্রমাণ দিয়েছে তাতে বিশ্ববাসীর হতবাক হওয়ারই কথা। আর তাই যুক্তরাষ্ট্র ও জাতিসংঘসহ বিভিন্ন মহল তথা বিশ্ব নেতারা প্রধানমন্ত্রী ও বাংলাদেশের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন।

এই অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতেই বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ প্রধানমন্ত্রীকে সংবর্ধনা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। তারই অংশ হিসেবে শনিবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সংবর্ধনা দিতে বিমানবন্দর থেকে গণভবন পর্যন্ত রাস্তায় অবস্থান করছেন আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা। সকাল ৯টা ২৫ মিনিটে লন্ডন থেকে ঢাকায় এসেছেন প্রধানমন্ত্রী।

তাকে সংবর্ধনা জানাতে দল ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে গণভবন পর্যন্ত সড়কের দুই পাশে অবস্থান নেবেন বলে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব-উল আলম হানিফ আগেই জানিয়েছেন।

তবে কোনো ধরনের জনদুর্ভোগ সৃষ্টি না করেই এই সংবর্ধনা দেওয়া হবে বলে আগেই আশ্বস্ত করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

গণমাধ্যমে পাঠানো দলের এক বিজ্ঞপ্তি থেকে জানা যায়, গণভবন থেকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় পর্যন্ত থাকবে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ, সেখান থেকে শহীদ জাহাঙ্গীর গেট অংশে স্বেচ্ছাসেবক লীগ, সেখান থেকে মহাখালী পর্যন্ত আশপাশের থানাগুলোর দল ও সহযোগী সংগঠন, সেখান থেকে বনানীর কাকলী অংশে ছাত্রলীগ, সেখান থেকে র্যাডিসন হোটেল পর্যন্ত স্বেচ্ছাসেবক লীগ এবং র্যাডিসন হোটেল থেকে বিমানবন্দর পর্যন্ত অংশে ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা ভাগে ভাগে অবস্থান নেবেন।

এসএম

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে