আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > বিজ্ঞান প্রযুক্তি > ওয়ালটন কারখানার যাত্রা শুরু

ওয়ালটন কারখানার যাত্রা শুরু

ওয়ালটন কারখানার যাত্রা শুরু

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক :

দেশে প্রথম মোবাইল হ্যান্ডসেট সংযোজন কারখানার যাত্রা করলো ওয়ালটন।

বৃহস্পতিবার টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম গাজীপুরের চন্দ্রায় ওয়ালটনের এই কারখানা উদ্বোধন করেছেন। পরে তিনি কারখানাটি ঘুরে দেখেন।

ওয়ালটন কর্তৃপক্ষ জানায়, মোবাইল ফোন কারখানা স্থাপনের জন্য অনেক আগেই বিটিআরসির কাছে আবেদন করেছিল। তার অনুমোদন পাওয়া গেছে বলেই যাত্রা হলো দেশে প্রথম মোবাইল কারখানার।

ওয়ালটন ডিজি-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড নামে এই কারখানা করেছে।

বৃহস্পতিবার কারখানার উদ্বোধনে উপস্থিত ছিলেন বিটিআরসি চেয়ারম্যান শাহজাহান মাহমুদ, বিটিআরসির বিভিন্ন বিভাগের পরিচালকসহ ওয়ালটনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

এর আগে ওয়ালটনের সিনিয়র অপারেটিভ ডিরেক্টর উদয় হাকিম জানিয়েছিলেন, কারখানা স্থাপনের পরিকল্পনা তাদের অনেক দিনের। বাজার গবেষণা, প্রস্তুতি আগেই করা হয়েছে। যন্ত্রপাতি আমদানিসহ প্রকৌশলগত কার্যক্রমও পরিকল্পনা অনুয়ায়ী সম্পন্ন হচ্ছে। শুরুতে মাসে প্রায় ৫ লাখ হ্যান্ডসেট উৎপাদনের কথাও জানান তিনি।

এছাড়াও ওয়ালটন প্রথমেই তাদের ফোন উৎপাদন ও সংযোজনের কারখানা স্থাপনে ১০০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করছে। তবে এই কারখানায় ধারাবাহিক বিনিয়োগের জন্য আরও তহবিল গুছিয়ে রেখেছে কোম্পানিটি।

চলতি বাজেটে সরকার স্থানীয়ভাবে মোবাইল ফোন হ্যান্ডসেট সংযোজন ও উৎপাদনের জন্য যন্ত্রপাতি আমদানির ওপর বড় ধরণের ছাড় দেয়। এক্ষেত্রে এসকেডি (সেমি নক ডাউন) পদ্ধতির ক্ষেত্রে ১০ শতাংশ এবং সিকেডি (কমপ্লিট নক ডাউন) পদ্ধতির ক্ষেত্রে ১ শতাংশ আমদানি শুল্ক নির্ধারণ করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে। এর আগে উভয় ক্ষেত্রে এ শুল্ক ছিল ৩৭.০৭ শতাংশ। আর এটিই কোম্পানিগুলোকে দেশের বাজারে মোবাইল হ্যান্ডসেট উৎপাদনে আগ্রহী করে তুলছে।

স্থানীয় কোম্পানিগুলো ছাড়াও বিদেশি কিছু কোম্পানিও দেশে হ্যান্ডসেট কারখানা স্থাপনের বিষয়ে ইতিবাচক পরিকল্পনাও করছে।

এ এস

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে