আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > রাজনীতি > রোহিঙ্গাদের ত্রাণ দিচ্ছে বিদেশিরা, সুনাম কুড়াচ্ছে আওয়ামী লীগ: নজরুল

রোহিঙ্গাদের ত্রাণ দিচ্ছে বিদেশিরা, সুনাম কুড়াচ্ছে আওয়ামী লীগ: নজরুল

রোহিঙ্গাদের ত্রাণ দিচ্ছে বিদেশিরা, সুনাম কুড়াচ্ছে আওয়ামী লীগ: নজরুল

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক:

মিয়ানমার থেকে আসা নির্যাতিত রোহিঙ্গাদের বিদেশ থেকে আসা ত্রাণ দিয়ে আওয়ামী লীগ সুনাম কুড়াচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান।

বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবে ‘রোহিঙ্গা গণহত্যা: বিশ্ব বিবেকের প্রতি চ্যালেঞ্জ ও আমাদের করনীয়’ শীর্ষক এক জাতীয় কনভেনশনে এসব কথা বলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির এ সদস্য। জাতীয় কনভেনশনের আয়োজন করে জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ।

জাতীয় কনভেনশনে আরও বক্তব্য দেন, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব নূর হোছাইন কাসেমী, কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহম্মদ ইব্রাহিম, হেফাজতের ইসলামী ঢাকা মহনগরীর নায়েবে আমীর আব্দর রব ইউসুফী প্রমুখ।

নজরুল ইসলাম খান বলেন, রোহিঙ্গাদের জন্য বিদেশ থেকে যে ত্রাণ আসছে তা সরকারের কাছে জমা হচ্ছে। আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক ওবায়দুল কাদের যে ত্রাণ দিচ্ছে রোহিঙ্গাদের মাঝে, সেই ত্রাণের বস্তায় ইউএন লেখা, বিভিন্ন দেশের সংস্থার নাম লেখা। তারা বিদেশী ত্রাণ রোহিঙ্গাদের মাঝে দিয়ে সুনাম কুড়াতে ব্যাস্ত হয়ে পড়েছে।

রোহিঙ্গাদের মাঝে ত্রান বিতরণে শৃঙ্খলা ফিরে এসেছে উল্লেখ করে বিএনপির এই নেতা বলেন, দেশের অনেক মানুষ মানবিক মূল্যবোধ থেকে রোহিঙ্গাদের মাঝে ত্রাণ বিতরণে এগিয়ে এসেছে। ত্রান বিতরণে আগে বিশৃঙ্খলা ছিল, আমরা সেনাবাহিনী মোতায়েনের দাবি জানিয়েছিলাম, সেনাবাহিনী মোতায়েনের পর থেকে ত্রাণ বিতরণে শৃঙ্খলা ফিরে এসেছে। এটাকে আরও সুসংহত করা দরকার বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

নজরুল ইসলাম খান বলেন, রোহিঙ্গাদের ওই জায়গা থেকে অন্যত্র সরিয়ে নেয়ার কথা বল হচ্ছে, এটা হচ্ছে নেতিবাচক চিন্তা। এধরনের চিন্তা আসে যখন তাদের নিজেদের দেশে ফেরত পাঠানো যায় না। এই ধরনের চিন্তা মিয়ানমারকে আরও সাহস যোগাবে। এই ধরনের চিন্তা থেকে সরে আসতে হবে সরকারকে। পৃথীবির সমস্ত দেশ রোহিঙ্গাদের পক্ষে ঐক্যবদ্ধ, সকল দেশই চায় শিগগিরই তাদের নিজেদের দেশে ফেরত পাঠানোর পক্ষে।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য বলেন, রোহিঙ্গাদের স্বদেশে ফিরে দেওয়া সরকারের উচিত। তারা নিরাপদে তাদের স্বদেশে ফিরে যেতে চায়। তাদের নিরাপত্তা একমাত্র আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় নিশ্চিত করতে পারে। কিন্তু আমাদের বন্ধুপ্রতিম দেশ ভারত-রাশিয়া-চীন মিয়ানমারের পক্ষে অবস্থান করছে। সরকারের কুটনৈতিক তৎপরতা এখানে ব্যর্থ হয়েছে।

নজরুল ইসলাম খান বলেন, প্রধানমন্ত্রী জাতিসংঘে রোহিঙ্গাদের নিয়ে ভাষণ দিয়েছেন, আমরা তাকে ধন্যবাদ জানাই। তিনি সেফ জোনের কথা বলেছেন, বিশ্বে বিভিন্ন দেশেই শরণার্থী রয়েছে, বহু জায়গায় সেফ জোন সৃষ্টি করা হয়েছে, কিন্তু সেফ জোনেও হামলার শিকার হয়েছে অনেক জায়গায়। সেই জন্য শুধু সেফ জোন হলেই হবে না, সেটার নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে।

 

ই এ/এ আর

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে