আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > আন্তর্জাতিক > সাবেক থাই প্রধানমন্ত্রী ইংলাকের ৫ বছরের কারাদণ্ড

সাবেক থাই প্রধানমন্ত্রী ইংলাকের ৫ বছরের কারাদণ্ড

থাইল্যান্ডের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইংলাকের ৫ বছরের কারাদণ্ডাদেশ

প্রতিচ্ছবি ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক:

চালের ভর্তুকি প্রকল্পের ব্যবস্থাপনায় দায়িত্বে অবহেলার দায়ে থাইল্যান্ডের ক্ষমতাচ্যুত সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইংলাক সিনাওয়াত্রাকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন দেশটির সর্বোচ্চ আদালত।

এই মামলার শুনানিতে অংশ নিতে ২৫ আগস্ট আদালতে হাজিরার দিন নির্ধারিত ছিল ইংলাকের। সেদিন আদালত প্রাঙ্গণে হাজির হয়েছিল তার শত শত সমর্থক। কিন্তু সবাইকে অবাক করে দিয়ে আদালতে অনুপস্থিত ছিলেন তিনি।

চালের ভর্তুকি বিষয়ক একটি স্কিম বিষয়ে দুর্নীতির সম্পর্কে জানার পরেও ব্যবস্থা না নেয়ার অভিযোগে তাকে দোষী সাব্যস্ত করে সুপ্রিম কোর্ট। রায়ে বলা হয় এতে থাইল্যান্ডের কমপক্ষে ৮ বিলিয়ন মার্কিন ডলার ক্ষতি হয়েছে। ২০১৪ সালে সামরিক অভ্যুত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতাচ্যুত ইংলাক এই অভিযোগ অস্বীকার করেন। যদিও থাই জনমত এই বিষয়ে বিভক্ত, দরিদ্র ও গ্রামের ভোটারদের মধ্যে ইংলাক ব্যাপক জনপ্রিয় এখনো।

গত মাসে রয়টার্সের এক খবরে বলা হয়, সংযুক্ত আরব আমিরাতের (ইউএই) দুবাইয়ে ইংলাকের ভাই ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী থাকসিন সিনাওয়াত্রার একটি বাড়ি আছে। থাইল্যান্ড থেকে পালিয়ে সেখানে গেছেন ইংলাক।

২০১১ সালের সাধারণ নির্বাচনে ক্ষমতায় আসেন ইংলাক সিনাওয়াত্রা। তিনি চালে ভর্তুকির যে প্রকল্পটি নিয়েছিলেন, তাতে সমর্থন ছিল বিপুলসংখ্যক কৃষকের। তবে সেনাশাসিত সরকারের দাবি, এই প্রকল্পে কোটি কোটি ডলার দুর্নীতি হয়েছে।

এন টি

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে