আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > আন্তর্জাতিক > মিয়ানমার গণহত্যায় সু চি ও তার সরকার দোষী , গণ আদালতের রায়

মিয়ানমার গণহত্যায় সু চি ও তার সরকার দোষী , গণ আদালতের রায়

ইন্টারন্যাশনাল পার্মানেন্ট পিপলস ট্রাইব্যুনাল’ এর প্রতিবেদন অনুযায়ী মিয়ানামারের রাখাইনে সংখ্যালঘুদের উপর

প্রতিচ্ছবি বিনোদন ডেস্ক:

‘ইন্টারন্যাশনাল পার্মানেন্ট পিপলস ট্রাইব্যুনাল’ বা আন্তর্জাতিক গণ আদালতের রায় অনুযায়ী মিয়ানামারের রাখাইনে সংখ্যালঘুদের উপর নির্যাতন ও গণহত্যার জন্য দায়ী মিয়ানমার সরকার ও সু চি।

মিয়ানমারের রোহিঙ্গা ও অন্যান্য সংখ্যালঘু গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে নিষ্ঠুরতা, নিন্দা ও নির্যাতনের শিকার ব্যক্তিদের সাক্ষ্য, তথ্য ও বিশেষজ্ঞের প্রমাণ বিবেচনা করার পর ৭-সদস্যের প্যানেল ট্রাইব্যুনাল এই রায় ঘোষণা করেছে।

আর্জেন্টিনা গণহত্যা কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা প্রধান বিচারক ড্যানিয়েল ফিয়ারস্টাইন, ইউনিভার্সিটি অফ মালয় এর লিগ্যাল ফ্যাকাল্টি মোড কোর্টের পাঁচ দিনের শুনানি শেষে এই তথ্য বেরিয়ে আসে।

তিনি বলেন, অনুসন্ধানে মিয়ানমারে চলমান সহিংসতা ও বর্বরতার প্রমাণ মিলেছে । মিয়ানমার যা করেছে তা মানবাধিকার লঙ্ঘনের চূড়ান্ত। তিনি আরো বলেন, ‘ট্রাইব্যুনাল যথাযথ প্রমাণ পেয়েছে যে, মুসলিম ও কাচিন সম্প্রদায়ের উপর নির্যাতনের জন্য দোষী মিয়ানমার।”

ট্রাইব্যুনালের সদস্যরা এও মন্তব্য করেন মিয়ানমারে আন্তর্জাতিক প্রবেশাধিকার নিশ্চিত করতে হবে। মিয়ানমারের আইন ও সংবিধান সংশোধিত করে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের পূর্ণ নাগরিক অধিকার আইন পাশ করতে হবে।

সাংগঠনিক সমিতির চেয়ারম্যান ড ছন্দ্রা মোজাফফর বলেন, এই রায় একটি কার্যকরী ভূমিকা রাখবে মিয়ানমারে জাতিগত নিপীড়ন ও শোষণ বন্ধ করতে। আর ট্রাইব্যুনালের ফলাফল এবং রায়কে আন্তর্জাতিক সংস্থা যেমন আসিয়ান, ইন্টারন্যাশনাল ক্রিমিনাল কোর্ট এর জন্য ভিত্তি হিসাবে ব্যবহার করা উচিত।

বর্তমান পরিস্থিতিতে মিয়ানমারে নির্বিচারে মানুষ হত্যা ও দেশ থেকে বিতাড়িত করার ফলে প্রায় ৪ লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে। মিয়ানমারে মানবিক সহায়তা দেয়ার জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে অনুমতি দেয়নি বলেও ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন তারা।

১৯৭৯ সালে ইতালিতে প্রতিষ্ঠিত হয় ‘পার্মানেন্ট পিপলস ট্রাইব্যুনাল’ প্রতিষ্ঠার পর থেকে মানবাধিকার ও গণহত্যা বিষয়ক এটি ছিল তাদের ৪৩ তম অধিবেশন।

এন টি

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে