আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > আন্তর্জাতিক > জঙ্গি হবার নেপথ্যে প্রেম!

জঙ্গি হবার নেপথ্যে প্রেম!

প্রতিচ্ছবি ডেস্ক:

গত জুলাই মাসে একই এলাকায় নিহত আরেক জঙ্গি বুরহান ওয়ানির ঘনিষ্ট ছিলেন সবজার। বুরহানের মৃত্যুর পর সবজারকে হিজবুল কমান্ডার নির্বাচিত করা হয়েছিল।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে,  সবজারের এই উত্থানের পিছনে নাকি রয়েছেন এক নারী। বিয়েব প্রস্তাব প্রত্যাখ্যাত হয়ে যাওয়ার পরই সন্ত্রাসবাদী কার্যক্রমে জড়িয়ে পড়েন সবজার।

 

sabzar-ahmad

সবজারের জন্ম  কাশ্মিরের এক মধ্যবিত্ত পরিবারে জন্ম, বেড়ে ওঠার সে স্থানেই। শৈশব কালেই এক তরুণীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক তৈরি হয় সবজারের। কিন্তু, সেই প্রেম নাকি টেকেনি। ওই তরুণীর পরিবার নাকি সবজারের মতো ছেলের সঙ্গে কোনও ভাবেই মেয়ের ওই সম্পর্ক মেনে নিতে পারেনি। মেয়েও পরিবারের বিরুদ্ধে বেশি দূর এগোতে পারেনি। কাজেই পরিবারের চাপে একটা সময়ে প্রেমিকা ফিরিয়ে দেয় সবজারের দেওয়া বিয়ের প্রস্তাব। এর পরেই সম্পর্কের ইতি।

সম্পর্ক শেষের এই ঘটনার পরই সবজারের জীবনে অন্ধকার নেমে আসে। প্রেমে প্রত্যাখ্যাত হয়ে সে হাত পাকাতে শুরু করে নানা গর্হিত কাজে। এই সময়ে ছোটবেলার বন্ধু বুরহানের সঙ্গে সম্পর্ক ঝালিয়ে নেয়। কাশ্মিরের সচ্ছল মধ্যবিত্ত পরিবারের ওই সুদর্শন তরুণও তখন বিপথগামী।

হিজবুলের কমান্ডারদের সঙ্গে পাহাড়ে-জঙ্গলে কেমন দিন কাটছে, ফেসবুকে নিয়মিত সেই সব ছবি দিতেন বুরহান। সেই দলে নাম লেখালো সবজারও। গত বছর ৮ জুলাই সেনা অভিযানে বুরহানের মৃত্যুর পর হিজবুলের হাল ধরেন সবজার। নতুন নাম হল ‘সব ডন’।

বুরহানের সঙ্গে প্রায় দুইবছর কাজ করেছিল সবজার। ভারতেই নানা জঙ্গি কার্যকলাপের প্রশিক্ষণ নেন তিনি। তবে, সব কিছু ছাড়িয়ে সবজারের মৃত্যুর পর উপত্যকা জুড়ে তার ব্যর্থ প্রেম কাহিনিই উড়ে বেড়াচ্ছে।

 

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে