আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > রোহিঙ্গা সংকট > রোহিঙ্গা বিদ্রোহীদের অস্ত্রবিরতি ঘোষণা

রোহিঙ্গা বিদ্রোহীদের অস্ত্রবিরতি ঘোষণা

রোহিঙ্গা বিদ্রোহীদের অস্ত্রবিরতি ঘোষণা

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক:

মিয়ানমারের রোহিঙ্গা বিদ্রোহীরা একতরফাভাবে এক মাসের জন্য অস্ত্রবিরতির ঘোষণা দিয়েছে। আজ (রোববার) থেকে এই অস্ত্রবিরতি কার্যকর হবে। আরাকান রোহিঙ্গা স্যালভেশন আর্মি (আরসা) গত ২৫ আগস্ট ওই হামলা চালায় বলে অভিযোগ মিয়ানমার সরকারের। সেই আরসা গতকাল শনিবার সাময়িক অস্ত্রবিরতির ঘোষণা দিয়েছে।

শনিবার ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে এআরএসএ’র বিবৃতিকে উদ্ধৃত করে বলা হয়েছে, মিয়ানমারের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে ত্রাণ ও মানবিক সহায়তা কার্যক্রম স্বাভাবিক করতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা জানিয়েছে সংগঠনটি। তবে এ ব্যাপারে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর কোনও প্রতিক্রিয়া জানা যায়নি।

এদিকে মিয়ানমার থেকে শরণার্থীদের ঢল এখনও অব্যাহত রয়েছে। শাহপরীর দ্বীপ, টেকনাফ সদর, হ্নীলার বেশ কয়েকটি পয়েন্ট দিয়ে অনেকে বাংলাদেশে ঢুকছেন। আবার নাফ নদীর ওপারে সীমান্তের শূন্যরেখার কাছে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর ১২৪ জন সদস্যকে শনিবার দুপুরের দিকে হেঁটে যেতে দেখা গেছে। শরণার্থীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। এদিকে, তমব্রু সীমান্তের ‘নো ম্যানস ল্যান্ডে’ থাকা অন্তত কয়েক হাজার রোহিঙ্গা দুপুরে একসঙ্গে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করে। তারা এসে জড়ো হয় কুতুপালং, বালুখালী, থাইনখালী ও পালংখালীতে।

এসব এলাকায় বেশ কয়েক দিন ধরেই লক্ষাধিক রোহিঙ্গা আশ্রয় নিয়েছে। এখনো অধিকাংশ খোলা আকাশের নিচে তাঁবু ছাড়াই অবস্থান করছে।

এন টি

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে