আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > আইন-মানবাধিকার > বগুড়ায় পুলিশ হেফাজতে বিএনপি নেতার মৃত্যু, আদালতে মামলা

বগুড়ায় পুলিশ হেফাজতে বিএনপি নেতার মৃত্যু, আদালতে মামলা

বগুড়ায় পুলিশ হেফাজতে বিএনপি নেতার মৃত্যু, আদালতে মামলা

প্রতিচ্ছবি বগুড়া প্রতিনিধি :

বগুড়ার শাজাহানপুরে পুলিশ হেফাজতে বিএনপি নেতা মাসুদুল হক পিন্টুর মৃত্যুর ঘটনায় কৈগাড়ী পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর আনিসুর রহমান, এসআই রফিকুল ইসলাম, কনস্টেবল আজিবুল, সাহেদ আলীসহ প্রতিপক্ষের ৮ জনকে আসামী করে মোট ১২ জনের নামে মামলা রেকর্ড করেছে শাজাহানপুর থানা পুলিশ।

মামলা রেকর্ডের পর তদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) এর কাছে। শাজাহানপুর থানায় মামলা দিলে থানা মামলা গ্রহন করা হয়নি। পরে বগুড়ার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত (২) এ মামলা দায়ের করা হয়। মামলার বাদী হয়েছেন নিহত পিন্টুর স্ত্রী খায়রুন নেছা।

বগুড়ার শাজাহানপুর থানার অফিসার ইনচার্জ জিয়া লতিফুল ইসলাম জানান, আদালতের আদেশ মোতাবেক ঈদের আগে মামলাটি রেকর্ড করার পর তা তদন্তের জন্য পিবিআইতে পাঠনো হয়েছে। পিবিআই কর্মকর্তারা সেটি তদন্ত করবেন।

উল্লেখ্য, বগুড়ার শাজাহানপুর থানার আশেকপুর ইউনিয়নের সাবরুল কারিগর পাড়ার বাসিন্দা, সাবেক ইউপি সদস্য এবং একই ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি পিন্টুর সাথে কয়েক বছর ধরে পুকুর ও জমি-জমা সংক্রান্ত বিরোধ চলছিল তার চাচাতো ভাই এনামুল হক মিলটন গং এর মধ্যে।

এ বিরোধের জের ধরে গত ১৯ আগস্ট মিলটন বাদী হয়ে পিন্টুকে প্রধান আসামীকে শাজাহানপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। ২২ আগস্ট বিকেল সাড়ে ৩টায় কৈগাড়ী পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর আনিসুর রহমানের নেতৃত্বে এসআই রফিকুল ইসলাম, কনস্টেবল আজিবুল, সাহেদ আলী ও প্রতিপক্ষসহ ওই মামলায় পিন্টুকে পুলিশ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে।

গ্রেফতারকৃত পিন্টু অসুস্থ্য হয়ে পড়লে পুলিশ সদস্যরা তাকে হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে পিন্টু মারা যায়।

এ ঘটনায় পরিবার থেকে শাজাহানপুর থানায় মামলা দিলেও তা নেয়া হয়নি। পরে ২৮ আগস্ট বগুড়া জেলা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে (২) পিন্টুর স্ত্রী খায়রুন নেছা বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলায় পিন্টুর চাচাতো ভাই এনামুল হক মিলটনকে প্রধান আসামী ও কৈগাড়ী পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর আনিসুর রহমানকে ৯ নং, এসআই রফিকুল ইসলামকে ১০ নং, কনস্টেবল আজিবুলকে ১১ নং ও সাহেদ আলীকে ১২ নং আসামী করা হয়েছে।

আমজাদ মিন্টু/এ আর

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে