আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > খেলাধুলা > সাকিব-মিরাজের ঘূর্ণিতে অলআউটের পথে অস্ট্রেলিয়া, স্কোর: ১৯৩/৯

সাকিব-মিরাজের ঘূর্ণিতে অলআউটের পথে অস্ট্রেলিয়া, স্কোর: ১৯৩/৯

সাকিব-মিরাজের ঘূর্ণিতে অলআউটের পথে অস্ট্রেলিয়া

প্রতিচ্ছবি ক্রীড়া প্রতিবেদক:

আগের দিনের তাণ্ডবের পর দ্বিতীয় দিনেও অব্যহত রয়েছে মিরাজ-সাকিব ক্যারিশমা। গতকাল শেষ বিকেলে সফরকারিদের যে চাপ দিয়ে রেখেছিলেন আজ সকালে এ দুই বোলার শুরুটা করলেন সেখান থেকেই।

আগের দিনের ১৮/৩ উইকেট নিয়ে আজ দ্বিতীয় দিন শুরুর পর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়ে চলছে অস্ট্রেলিয়া। স্বাগতিক স্পিনারদের ঘূর্ণি ফাঁদে একে একে বিদায় নিয়েছেন অজি অধিনায়ক স্মিথ-হ্যান্ডসকম-র‌্যানশর। ঢাকা টেস্টের দ্বিতীয় দিনে টাইগারদের আনন্দে ভাসানো তিন স্পিনার মিরাজ-তাইজুল-সাকিব। মিরাজের ৩টি আর সাকিবের ঝুঁলিতে জমা পরেছে ৪টি উইকেট। এছাড়া তাইজুল ১টি আর আরেকটি রানআউট।

এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়ার সংগ্রহ ৯ উইকেটে ১৯৩। এরআগে প্রথম ইনিংসে ব্যাট করে ২৬০ রান সংগ্রহ করে বাংলাদেশ।

দ্বিতীয় দিনের শুরুতেই বিপজ্জনক ব্যাটসম্যান স্মিথকে সাজঘরে ফিরিয়ে দ্বিতীয় দিনের শুরুতেই দলকে আনন্দে ভাসান মেহেদী হাসান মিরাজ। এরপর ম্যাট রেনশর আর পিটার হ্যান্ডসকমের বিদজনক জুটি ভেঙ্গে বাংলাদেশ শিবিরে স্বস্তি এনে দেন তাইজুল ইসলাম। এরপর দ্রুতই রেনশর উইকেট তুলে ম্যাচের লাগাম টাইগারদের হাতে তুলে দেন সাকিব আল হাসান।

বোল্ড করে ফিরিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথকে। এগিয়ে এসে খেলতে গিয়ে বলে ব্যাটই ছোঁয়াতে পারেননি আইসিসি টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ এই ব্যাটসম্যান। আগের দিন অস্ট্রেলিয়ার উইকেট পতনের শুরুটাও হয়েছিল মিরাজের ঘূর্ণিতেই। ৮ রানে করে স্মিথ ফেরার সময় অস্ট্রেলিয়ার সংগ্রহ ছিল ৩৩/৪।

এরপর পঞ্চম উইকেট পড়ে দলীয় ১০২ রানে, সাজঘরে ফেরেন পিটার হ্যান্ডসকম্ন (৩৩)। ব্যাক্তিগত ৪৫ রানে বিদায় নেন প্রান্ত আগলে ব্যাট করে চলা ম্যাট রেনশ। দলীয় রান তখন ১১৯। সেট এ ব্যাটসম্যানকে ফেরান সাকিব। আর লাঞ্চের পরের ওভারেই ফের আঘাত হানেন মিরাজ। অজি উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান ম্যাথিউ ওয়েডকে সেট হওয়ার আগে ফিরিয়ে দেন সাজঘরে (৫)।

আর অস্ট্রেলিয়া অষ্টম উইকেট হারায় ১৪৪ রানে। অলরাউন্ডার গ্লেন ম্যাক্সওয়েলকে (২৩) স্ট্যাম্পিংয়ের ফাঁদে ফেলে নিজের তৃতীয় উইকেট শিকার করেন  বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান।

এরপর অবশ্য নবম উইকেটে বড় জুটির আভাস দিয়ে টাইগার অধিনায়কের কপালে চিন্তার ভাঁজ ফেলে দিয়েছিলেন কামিন্স-অ্যাগার। ৪৯ রানের এ জুটি ভেঙ্গে নিজের চতুর্থ উইকেট তুলে নেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। কামিন্সের উইলো থেকে আসে ২৫ রান।

এর আগে প্রথম দিনের শেষ সেশনের শেষ দিকে ডেভিড ওয়ার্নারকে (৮) ফিরিয়ে শুরুটা করেন মিরাজ। আর দিনের শেষ আঘাতটা আসে সাকিব আল হাসানের হাত ধরে। অজি ব্যাটসম্যান নাথান লায়নকে (০) সাজঘরে ফেরান তিনি। এছাড়া রান আউটে কাটা পড়েন উসমান খাজা (১)।

এমএম/এ আর

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে