আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > আইন-মানবাধিকার > মির্জা ফখরুলের মানহানি মামলার হাইকোর্টের স্থগিতাদেশ

মির্জা ফখরুলের মানহানি মামলার হাইকোর্টের স্থগিতাদেশ

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক:

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বিরুদ্ধে দায়ের করা মানহানি মামলার কার্যক্রম স্থগিত করে দিয়েছেন হাইকোর্ট।

একই সাথে তাকে কেন স্থায়ী জামিন দেয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুলও জারি করেছেন আদালত।

বুধবার হাইকোর্টের বিচারপতি মো. মিফতাহ উদ্দিন চৌধুরী ও বিচারপতি এ এন এম বসির উল্লাহ’র সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ রুলসহ স্থগিতাদেশ দেন।

আদালতে আজ মির্জা ফখরুলের পক্ষে শুনানি করেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন। সঙ্গে ছিলেন অ্যাডভোকেট সগীর হোসেন লিয়ন।

পরে সগীর হোসেন লিয়ন সাংবাদিকদের জানান, আদালত মামলা বাতিলে রুল জারি করেছেন। এ রুল নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত মামলার কার্যক্রমের ওপর স্থগিতাদেশ দিয়েছেন।
মামলায় অভিযোগ আনা হয়, ২০১৪ সালের ২৪ আগস্ট বিএনপির নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ফখরুল ইসলাম ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে খুনি ও তার দল আওয়ামী লীগকে খুনির দল’ বলেন। এ বক্তব্যটি পরেরদিন গণমাধ্যমে ফলাও করে প্রচার করা হয়।

মামলায় আরও বলা হয়, ফখরুল ইসলাম অভিযোগ করে বলেন, ‘শতশত তরুণ-যুবকের রক্তে তার (প্রধানমন্ত্রীর) হাত রঞ্জিত। আওয়ামী লীগ সরকার ও পাক হানাদার বাহিনীর মধ্যে কোনো পার্থক্য নেই।’

মির্জা ফখরুল ইসলামের ওই বক্তব্য গণমাধ্যমে প্রচার হওয়ার পর ২০১৪ সালের ১ সেপ্টেম্বর আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের সহ-সভাপতি এসএম নূর-ই-আলম সিদ্দিক বাদী হয়ে ঢাকা মহানগর মূখ্য হাকিম আদালতে মানহানির মামলাটি দায়ের করেন। এ মামলায় চলতি বছরের ৯ জুলাই অভিযোগ গঠন করেন আদালত। এরপর মামলা বাতিলের জন্য হাইকোর্টে আবেদন করেন মির্জা ফখরুল। ওই আবেদন শুনানিতে আদালত আজ এই আদশে দেন।
এ এস

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে