আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > বিনোদন-সংস্কৃতি > ‘বিয়ে ও লিভ টুগেদারের মধ্যে পার্থক্য দু’টুকরো কাগজ’

‘বিয়ে ও লিভ টুগেদারের মধ্যে পার্থক্য দু’টুকরো কাগজ’

ইলিয়ানা ডি ক্রুজ

প্রতিচ্ছবি বিনোদন ডেস্ক:

তামিল ছবি হতে বলিউডে অভিষেক হওয়ার পর থেকেই সফলতা পেয়ে আসছেন ইলিয়ানা ডি ক্রুজ। হাফ ডজন ছবি করেছেন তিনি। আর সবটিতেই প্রধান নারী চরিত্রে অভিনয় করেছেন।

এবার বিয়ে ও লিভ টুগেদার নিয়ে মুখ খুললেন তিনি। বিয়ে ও লিভ টুগেদারের মধ্যে কোন পার্থক্য নেই বলে মনে করেন তিনি। তাঁর মতে বিয়ে শুধু মাত্র দু’ টুকরো কাগজের মধ্যে সীমাবদ্ধ।

সাম্প্রতি ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম মিড ডে’কে এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, আমার কাছে মনে হয় বিয়ে ও লিভ টুগেদারের মধ্যে সত্যি কোনো পার্থক্য নেই। এটা শুধু মাত্র দু’ টুকরো কাগজের মধ্যে সীমাবদ্ধ। অনেকেই বিয়েটাকে বিরাট কিছু মনে করেন। এটি দু’টো মানুষের অনেক কিছুই পরিবর্তন করে। কিন্তু বিষয়টিকে আমি সেভাবে দেখি না।

নিজের ব্যক্তিগত সম্পর্ক ও প্রেমিক সম্পর্কে বলতে গিয়ে তিনি বলেন, আমি কখনোই মিডিয়া এবং আমার ব্যক্তিগত জীবনকে এক করি না। তবে এ বিষয়ে বলতেই আমার কোন দ্বিধা নেই। আমার প্রেমিক সম্পর্কে মোটামুটি সবাই জানেন। তার নাম এন্ড্রু নিবোন। সে অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক। আমরা খুব ভালো আছি একসঙ্গে।

তাহলে বিয়ে করছেন না কেন? এমন প্রশ্নের উত্তরে ইলিয়ানা বলেন, বলতে দ্বিধা নেই এন্ড্রুর সঙ্গে আমি থেকেছিও। যেটাকে বলা হয় লিভ টুগেদার। আসলে আমি মনে করি বিয়ে ও লিভ টুগেদারের মধ্যে কোনো পার্থক্য নেই। তারপরও বিয়ে যেহেতু একটি রীতি। সেটাতো করতেই হবে। তবে এখনই নয়, সময় হলে।

‘বরফি’ ও ‘ফাটা পোস্টার নিকলা হিরো’ ছবি দুটি বলিউডে ব্যাপক পরিচিতি এনে দেয় ইলিয়ানাকে। মুম্বাইয়ের মেয়ে হলেও ২০০৬ সালে তামিল ও তেলেগু ছবি দিয়েই ইলিয়ানার অভিনয় যাত্রা শুরু হয়। পোকিরি, জলসা, কিক, জুলায়ি’র মতো সুপারহিট ছবিগুলো তাকে সেখানকার শীর্ষ অভিনেত্রীরূপে প্রতিষ্ঠিত করেছে। ২০০৬ সালে তেলেগু ছবি ‘দেবদাসু’-তে অভিনয়ের জন্য বছরের সবচেয়ে সম্ভাবনাময় অভিনেত্রীর পুরস্কার পান তিনি।

এসএম

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে