আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > জাতীয় > ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা: তারেক রহমানসহ ১৮ আসামি ধরাছোঁয়ার বাইরে

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা: তারেক রহমানসহ ১৮ আসামি ধরাছোঁয়ার বাইরে

%e0%a6%aa%e0%a7%8d%e0%a6%b0%e0%a6%a4%e0%a6%bf%e0%a6%9a%e0%a7%8d%e0%a6%9b%e0%a6%ac%e0%a6%bf-%e0%a7%a8%e0%a7%a7-%e0%a6%86%e0%a6%97%e0%a6%b8%e0%a7%8d%e0%a6%9f

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক:

একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় তারেক রহমানসহ ‘হাই প্রোফাইল’১৮ আসামি এখনও ধরাছোঁয়ার বাইরে। তাদের মধ্যে ৯ জন যুক্তরাজ্যসহ বিভিন্ন দেশে অবস্থান করছে। ভারতে কারাবন্দি রয়েছে দু’জন। অন্য সাত জনের অবস্থান সম্পর্কে নিশ্চিত নয় পুলিশ। মামলার গুরুত্বপূর্ণ আসামি তারেক রহমানকে ফিরিয়ে আনতে যুক্তরাজ্য সরকারের সাথে আলোচনা চলছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম।

২১শে আগস্ট বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার উপর গ্রেনেড হামলা মামলায় মোট আসামি ৫২ জন। এর মধ্যে অন্য মামলায় বিএনপি-জামাত জোটের মন্ত্রী ও জামায়াতের সেক্রেটারি জেনারেল আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদ, হরকাতুল জিহাদ নেতা মুফতি আব্দুল হান্নান ও শরীফ শাহেদুল আলমের ফাঁসি হয়েছে । অন্যদের মধ্যে ২৩ জন কারাবন্দি। জামিনে আছে ৮ জন। আর ১৮ জন পলাতক রয়েছে।

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার প্রধান আসামি
২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার প্রধান আসামি

মামলার ‘হাই প্রোফাইল’ আসামিদের বেশির ভাগই বিদেশে অবস্থান করছে। অন্যতম আসামি বিএনপি’র সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান যুক্তরাজ্যে, বিএনপি নেতা মোফাজ্জল হোসেইন কায়কোবাদ ও হরকাতুল জিহাদ নেতা জাহাঙ্গীর বদর সংযুক্ত আরব আমিরাতে, তৎকালীন ডিজিএফআই’র কর্মকর্তা এ টি এম আমিন যুক্তরাষ্ট্রে, আরেক কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম জোয়ারদার কানাডায় আছেন। এছাড়া, মাওলানা তাজউদ্দিন ও তার ভাই বাবু ওরফে রাতুল বাবু দক্ষিণ আফ্রিকায়, পরিবহণ ব্যবসায়ী মোহাম্মদ হানিফ থাইল্যান্ডে অবস্থান করছে।

অন্য আসামিদের মধ্যে হরকাতুল জিহাদ নেতা শফিকুর রহমান, আব্দুল হাই, দেলোয়ার হোসেন জোবায়ের ওরফে লিটন, খলিলুর রহমান ও ইকবাল এবং পুলিশ কর্মকর্তা খান সাঈদ হাসান ও ওবায়দুর রহমান কোথায় আছে- সে সম্পর্কে সুনির্দিষ্ট তথ্য নেই আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে।

shahriar_alam_mp

পলাতকদের মধ্যে তারেক রহমানসহ কয়েকজনকে ফিরিয়ে আনার প্রক্রিয়া চলছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম। তিনি প্রতিচ্ছবিকে বলেন, ‘তারেক রহমান লন্ডন আছেন। তাকে ফেরত আনার প্রক্রিয়া চলছে। এ ব্যাপরে খুব শিগগিররই ইতিবাচক কিছু একটা হবে বলেও আশাবাদী পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী।’

তবে, তারেক রহমানসহ অনেককেই রাজনৈতিক উদ্দেশে এ’ মামলায় জড়ানো হয়েছে বলে দাবি করেছেন তার আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া।

২১শে আগস্ট বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়মী লীগের সন্ত্রাসবিরোধী সমাবেশে গ্রেনেড হামলা হয়। আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনাকে হত্যা করে আওয়ামীলীগকে ধ্বংস করার উদ্দেশেই ওই হামলা চালানো হয়। আওয়ামী লীগ বরাবরই অভিযোগ করে আসছে হাওয়া ভবনে বসেই হামলার চক্রান্ত করেছিলো তারেক রহমানসহ বিএনপি-জামাত জোটের নেতারা।

ডিডিআর / এমএম

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে