আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > জাতীয় > ঢাকা-বঙ্গবন্ধু সেতু চারলেন প্রকল্পের কারণেই রেলসেতুতে ধস

ঢাকা-বঙ্গবন্ধু সেতু চারলেন প্রকল্পের কারণেই রেলসেতুতে ধস

ঢাকা-বঙ্গবন্ধু সেতু চারলেন প্রকল্পের কারণেই রেলসেতুতে ধস

প্রতিচ্ছবি টাঙ্গাইল প্রতিনিধি :

ঢাকা-বঙ্গবন্ধু সেতু চারলেন মহাসড়কের কারণেই টাঙ্গাইলের পৌলি নদীর রেলসেতুতে ধস নেমেছে বলে মন্তব্য করেছেন রেলওয়ে পশ্চিম অঞ্চলের প্রধান প্রকৌশলী রমজান আলী। রোববার ধসে যাওয়া রেলসেতু পরিদর্শনে এসে এসব কথা বলেন তিনি।

প্রকৌশলী রমজান আলী জানান, বঙ্গবন্ধু সেতু-ঢাকা মহাসড়কে চলমান চার লেনের কাজ চলছে। পৌলি রেলসেতুর কাছে চার লেন প্রকল্পের সেতু নির্মানের সময় থেকে সেখানে পানি বাঁধাপ্রাপ্ত হচ্ছে। যার প্রভাব পড়ছে রেল সেতুর উপর। এ কারণে এ ঘটনা ঘটতে পারে।

তিনি আরো বলেন, আমরা ঘটনাস্থলে পরিস্থিতির পর্যবেক্ষণ করছি। এখানে প্রায় ২০ ফুট গভীর হয়েছে এবং মাটি সরে পড়েছে। ঢাকা থেকে অভিজ্ঞ প্রকৌশলীরা আসছে। তারা যত দ্রুত সম্ভব ব্যবস্থা নিবে।

এর আগে রোববার ভোরে টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলায় পৌলি নদীর উপর রেলসেতুর এপ্রোচ সড়কের মাটি প্রায় ২০ফুট ভেঙে পড়েছে। ফলে ঢাকার সাথে উত্তরাঞ্চল ও দক্ষিন-পশ্চিমাঞ্চলের রেল যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে।

রোববার সকাল ছয়টার দিকে রেল সেতুর এপ্রোচ মাটি সরে যেতে দেখে স্থানীয়রা লাল কাপড় টাঙিয়ে সতর্কবার্তা প্রদর্শন করে। এরপর প্রশাসনকে বিষয়টি অবহিত করে।

capture-2

টাঙ্গাইলের ঘারিন্দা রেল স্টেশন মাষ্টার জালাল উদ্দিন জানান, সকাল সাড়ে ৫টার দিকে খুলনা থেকে ঢাকাগামী সুন্দরবন এক্সপ্রেস কালিহাতির পৌলী রেলসেতু অতিক্রম করার পরই পৌলী রেল ব্রিজের ৩০ ফিট এলাকা জুড়ে এপ্রোচ সড়ক ধসে পরে।

বন্যার পানিতে মাটি নরম হয়ে যাওয়ায় এই ঘটনা ঘটেছে বলেও জানান স্টেশন মাস্টার জালাল।

এ ঘটনার পরপরই ঢাকার সাথে উত্তরবঙ্গ ও দক্ষিণাঞ্চলের ট্রেন চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। ঘটনাস্থলে নীলফামারী এক্সপ্রেস, বঙ্গবন্ধু সেতুর পূর্ব স্টেশনে রংপুর এক্সপ্রেস, বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিম স্টেশনে একতা এক্সপ্রেস এবং ধূমকেতু এক্সপ্রেস ট্রেনগুলো জয়দেবপুর রেলস্টেশনে আটকা পড়ে আছে।

এদিকে স্থানীয় এলাকাবাসী অভিযোগ করে বলেন, প্রশাসনকে ম্যানেজ করে দীর্ঘদিন ধরে এই রেল সেতুর কোল ঘেঁষে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করার ফলে এ ঘটনা ঘটে।

টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক খান মো: নুরুল আমিন ঘটনাস্থল পরিদর্শনকালে জানান, এ ঘটনা যদি বালু উত্তোলনের কারনে হয়ে থাকে তাহলে জড়িতদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

অভিজিৎ ঘোষ/এ আর

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে