আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > অর্থ-বাণিজ্য > বন্যার্তদের সহায়তায় বিশ্বব্যাংকের ২ হাজার কোটি টাকা

বন্যার্তদের সহায়তায় বিশ্বব্যাংকের ২ হাজার কোটি টাকা

বন্যার্তদের সহায়তায় বিশ্বব্যাংকের ২ হাজার কোটি টাকা

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক :

দেশব্যাপী বন্যা ও প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলায় দুই হাজার কোটি টাকার সহায়তা দেয়ার প্রস্তাব দিয়েছে বিশ্বব্যাংক। অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের (ইআরডি) কাছে দেয়া এ প্রস্তাব নিয়ে ইতোমধ্যে আলোচনা শুরু হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

জানা গেছে, প্রস্তাবনা অনুযায়ী বিশ্বব্যাংকের আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থার (আইডা) মাধ্যমে সর্বোচ্চ ২৫ কোটি ডলার অথবা বাংলাদেশের জিডিপির আকারের শূন্য দশমিক ৫ ভাগের সমান অর্থ নেয়া যাবে। বাংলাদেশে প্রতি বছর আইডার মাধ্যমে যে ধারাবাহিক সহায়তা দেয়া হচ্ছে তার বাইরে নতুনভাবে এই ঋণ দিতে আগ্রহী সংস্থাটি।

আরো জানা গেছে, দেশে হঠাৎ প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষয়ক্ষতি কমিয়ে আনতে এ ধরনের চুক্তির প্রস্তাব দিয়েছে সংস্থাটি। চুক্তির আওতায় বিভিন্ন দুর্যোগে দ্রুত ক্ষয়ক্ষতি মোকাবেলায় প্রকল্পের মাধ্যমে এ ধরনের ঋণ পাওয়া যাবে।

প্রস্তাবনা অনুযায়ী, চুক্তির পরবর্তী তিন বছরের যেকোনো সময়ে এ অর্থ বাংলাদেশ গ্রহণ করতে পারবে। চুক্তি নবায়ন করার মাধ্যমে পরবর্তী তিন বছরেও এ অর্থ সংগ্রহ করা যাবে। এজন্য কোনো কমিটমেন্ট ফি ধার্য হবে না। প্রস্তাবনার ওপর অর্থ মন্ত্রণালয়, দুর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও বিভাগগুলোর মতামত চাওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, বিশ্বব্যাংক তিন বছরের জন্য ঋণ কর্মসূচি ঘোষণা করে। আইডা-১৭ কর্মসূচির আওতায় গত তিন অর্থবছর (২০১৫-১৭) ৪ দশমিক ৩ বিলিয়ন ডলার সহায়তা দিয়েছে। চলতি অর্থবছর থেকে পরবর্তী তিন বছরের জন্য আইডা-১৮ এর বাইরে এ ধরনের ঋণ প্রস্তাব করল বিশ্বব্যাংক।

এ ধরনের ঋণের গুরুত্ব উল্লেখ করে বিশ্বব্যাংক বলছে, বাংলাদেশে প্রতি বছর বন্যা ও ঘূর্ণিঝড়ে ৩২০ কোটি ডলারের সমপরিমাণ আর্থিক ক্ষতি হয়, যা মোট দেশজ উৎপাদনের (জিডিপি) ২ দশমিক ২ ভাগের সমান।

এ আর

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে