আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > আন্তর্জাতিক > বিষাক্ত ডিমে ছেয়ে গেছে ইউরোপ

বিষাক্ত ডিমে ছেয়ে গেছে ইউরোপ

বিষাক্ত ডিমে ছেয়ে গেছে ইউরোপ ১

প্রতিচ্ছবি ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক:

ইউরোপীয় ইউনিয়নের ১৫টি দেশ, হংকং ও সুইজারল্যান্ডসহ অনেক দেশে  কীটনাশকযুক্ত বিষাক্ত ডিম পাওয়ার ঘটনায় উদ্বিগ্ন দেশগুলো। ফিপ্রোনিল নামে এক ধরনের কীটনাশক যা চামড়ার উকুন আর এঁটেল পোকা মারতে ব্যবহার হয় সেটি পাওয়া গেছে ডিমে।

ফিপ্রোনিল নামের ওই বিষাক্ত রাসায়নিক মানুষের শরীরে ঢুকলে কিডনি, লিভার ও থাইরয়েড গ্রন্থির ক্ষতি হতে পারে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এটিকে মাঝারি মাত্রার বিষ বলে ঘোষণা করেছে। বিষয়টি নিয়ে বেলজিয়াম, নেদারল্যান্ডস ও জার্মানি পরস্পরকে দোষারোপ করছে। গতকাল শুক্রবার এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে বিশেষ সভা ডেকেছিল ইউরোপীয় কমিশন।

বেলজিয়াম জানায়, নেদারল্যান্ডস থেকে আসা ডিমে ক্ষতিকর পদার্থ থাকার বিষয়টি গত জুন মাস থেকেই জানত তারা। বেলজিয়ামের খাদ্য নিরাপত্তা বিষয়ক সংস্থা জানায়, তদন্তের স্বার্থেই এ বিষয়ে কোনো তথ্য প্রকাশ করা হয়নি।

ফ্রান্সের কৃষিমন্ত্রী জানিয়েছেন, এপ্রিল থেকে এখনো পর্যন্ত ফ্রান্সে প্রায় আড়াই লক্ষ বিষাক্ত ডিম বিক্রি হয়েছে।

বিষাক্ত ডিমে ছেয়ে গেছে ইউরোপ

এই ঘটনায় প্রশ্ন উঠেছে বেলজিয়াম ও নেদারল্যান্ডস সরকারের ভূমিকা নিয়ে। অনেক দেশই এদের দিকে অভিযোগের আঙুল তুলেছে। আর এরপরই প্রশ্ন উঠেছে, নেদারল্যান্ডস, বেলজিয়াম ও জার্মানি কবে থেকে এই বিষাক্ত ডিমের বিষয়ে জানত। এই নিয়ে চলছে পাল্টাপাল্টি দোষারোপ।

ইউরোপীয় কমিশনের স্বাস্থ্য ও খাদ্য নিরাপত্তা বিভাগ বলছে, প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে আমাদের একসঙ্গে কাজ করতে হবে এবং দোষারোপের পরিবর্তে এগিয়ে আসতে হবে।

প্রসঙ্গত, ইউরোপে ডিম ও ডিমজাত খাদ্যের সবচেয়ে বড় রপ্তানিকারী দেশ নেদারল্যান্ডস। সারা বিশ্বে ডিম রপ্তানিকারী দেশগুলোর মধ্যে এটি একটি। প্রতিবছর প্রায় এক হাজার কোটি ডিম উৎপাদন করে দেশটি। যার মধ্যে ৬৫ শতাংশই রপ্তানি হয় ইউরোপসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে।

এফ এইচ/ এন টি

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে