আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > জাতীয় > ফ্লাইট জটিলতা: ১৯ হজ এজেন্সিকে শোকজ

ফ্লাইট জটিলতা: ১৯ হজ এজেন্সিকে শোকজ

ফ্লাইট জটিলতা: ১৯ হজ এজেন্সিকে শোকজ

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক :

হজের ফ্লাইটে বাধা সৃষ্টির অভিযোগে ১৯ হজ এজেন্সিকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছে ধর্ম মন্ত্রনালয়। হজ অফিসের পরিচালক মো. সাইফুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এ চিঠিতে এ নোটিশ দেয়া হয়েছে।

নোটিশে বলা হয়েছে, গত ৮ আগস্ট ১৯ এজেন্সি মালিক/ অংশীদার/ পরিচালক/ চেয়ারম্যানদের ভিসা সংক্রান্ত সভায় উপস্থিত থাকার জন্য চিঠি ও টেলিফোনে অনুরোধ জানানোর পরও তারা উপস্থিত হননি। তাদের অনুপস্থিতির জন্য হজ ব্যবস্থাপনায় বিঘ্নের সৃষ্টি হচ্ছে।

এ কারণে কেন তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে না তা লিখিতভাবে বৃহস্পতিবারের মধ্যে জানাতে অনুরোধ জানানো হয়। অন্যথায় হজযাত্রী প্রেরণে জটিলতা সৃষ্টি হলে তার দায়-দায়িত্ব সংশ্লিষ্ট হজ এজেন্টকে বহন করতে হবে বলে চিঠিতে উল্লেখ করা হয়।

যে এজেন্সিগুলোকে নোটিশ দেয়া হয়েছে- বদরপুর ট্রাভেলস অ্যান্ড ট্যুরস (২৪১ জন), আজমল ট্রেড ইন্টারন্যাশনাল (১৫৯ জন), গোল্ডেন ট্রাভেলস অ্যান্ড কার্গো সার্ভিসেস (২৫১ জন), ঢাকা হজ কাফেলা অ্যান্ড ট্রাভেলস (১৮২ জন), হাবিব এয়ার ট্রাভেলস অ্যান্ড ট্যুরস (২২০ জন), হা-মিম ট্রাভেল অ্যান্ড ট্যুরস (১৫৪ জন), এমএএম ইন্টারন্যাশনাল ট্রাভেল অ্যান্ড ট্যুর (১৫০ জন), এম/এস এম নুর ই মদিনা হাজি ট্রাভেলস (২০৮ জন), মাবরুর এয়ার ইন্টারন্যাশনাল (১৬৪ জন), মাহির হজ সার্ভিসেস অ্যান্ড ট্যুরস (১৭২ জন), মক্কা বাবে জান্নাত ট্রাভেলস অ্যান্ড ট্যুরস (১৫৮ জন), মেছফালা ট্রাভেলস (২২৫ জন), এমএইচএম ওভারসিজ (১৮০ জন), পেনাং ট্রাভেলস অ্যান্ড ট্যুরস (১৫১ জন), এম/এস মক্কা অ্যান্ড মদিনা ট্রাভেলস (২৬৫ জন), সাকের হজ কাফেলা অ্যান্ড ট্রাভেলস (১৫৪ জন), মিম ট্রাভেলস ইন্টারন্যাশনাল (১৬৮ জন), তাওসিফ ট্রাভেলস অ্যান্ড ট্যুরস (১৫৫ জন) ও এম আলী ইন্টারন্যাশনাল ট্রাভেলস (২০৯ জন)।

প্রসঙ্গত, ভিসা জটিলতায় যাত্রী সংকটের কারণে এখন পর্যন্ত মোট ২৩টি ফ্লাইট বাতিল ঘোষণা করা হয়েছে। এই মধ্যে ১৯টি বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের আর বাকি ৪টি সৌদি এয়ারলাইন্সের।

এ বছর সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় মোট হজযাত্রীর সংখ্যা ১ লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন। হজযাত্রীদের সৌদি আরবে যাত্রার প্রথম ফ্লাইট সেখানে পৌঁছেছে ২৪ জুলাই। শেষ ফ্লাইট যাবে ২৮ আগস্ট। ফিরতি ফ্লাইট শুরু হবে ৬ সেপ্টেম্বর ও শেষ ফিরতি ফ্লাইট ৫ অক্টোবর। চাঁদ দেখা সাপেক্ষে পহেল সেপ্টেম্বর হজ অনুষ্ঠিত হতে পারে।

এএম/এ আর

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে