আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > অপরাধ > বেনাপোলে প্রায় সোয়া ১ কোটি টাকার মেশিনারিজ পণ্য আটক

বেনাপোলে প্রায় সোয়া ১ কোটি টাকার মেশিনারিজ পণ্য আটক

benapole-meshinarise-picture-1-copy

প্রতিচ্ছবি বেনাপোল প্রতিনিধি :

বেনাপোলে ১ কোটি ১৬ লাখ ৮৭ হাজার ৮৭৮ টাকা মূল্যের ক্যাপিটাল মেশিনারিজ আটক করেছে শুল্ক গোয়েন্দা সদস্যরা। এতে অতিরিক্ত রাজস্ব আদায় হবে প্রায় ৬৯ লক্ষ টাকা।

বেনাপোল কাস্টমসের শুল্ক গোয়েন্দার ডেপুটি কমিশনার সাদেক হোসাইন ক্যাপিটাল মেশিনারিজ আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে শুল্ক গোয়েন্দার সদস্যরা জানতে পারেন ভারত থেকে মিথ্যা ঘোষণার  ক্যাপিটাল মেশিনারিজের একটি চালান বেনাপোল বন্দরে খালাস করা হবে। চালানটির পণ্য ঘোষণায় ওজন ও এইচ এস কোডের ব্যাপক গরমিল পাওয়া গেছে। সে অনুযায়ী, শুল্ক গোয়েন্দারা বন্দরে নজরদারি বাড়ায়।

এতে ইন্ডাস্ট্রিয়াল ইলেকট্রিক ফার্নেস ঘোষণায় আনা ক্যাপিটাল মেশিনারিজের চালানটি আটক হয়। এর আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান মোহাম্মদী স্টিল ওয়ার্কস, নারায়ণগঞ্জ এবং এর সিএন্ডএফ এজেন্ট হলো গণি এন্ড সন্স, বেনাপোল।

কাস্টম হাউস বেনাপোল কর্তৃক আমদানিকারকের ঘোষণা অনুযায়ী পরীক্ষণ ও শুল্কায়ন কার্যক্রম সম্পন্ন করে খালাসের আদেশ দেয়া হয়। কিন্তু শুল্ক গোয়েন্দাদের হস্তক্ষেপে চালানটির খালাস কার্যক্রম স্থগিত করা হয়। পরে শুল্ক গোয়েন্দা ও কাস্টম হাউসের প্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে আবার চালানটির কায়িক পরীক্ষা করা হয়।

পরীক্ষায় আমদানিকারকের ঘোষণা অনুযায়ী ২০০ কেজি ট্রান্সফরমার অয়েল এর স্থলে ৮৩৬ কেজি। যেখানে বেশী আছে ৬৩৬ কেজি। এবং ৫০ কেজি লুব্রিকেন্ট (HS Code ২৭/১০/১৯২১) এর স্থলে ২৫ হাজার ২০ কেজি গ্রিজ (HS Code ২৭/১০/১৯৩৪) পাওয়া যায়।

আটককৃত পণ্যের মূল্য প্রায় ১ কোটি ১৬ লাখ ৮৭ হাজার ৮৭৮ টাকা এবং ফাঁকিকৃত শুল্ক করের পরিমাণ প্রায় ৬৮ লাখ ২০ হাজার ১৩২ টাকা। চালানটিতে প্রাথমিকভাবে পরিশোধিত শুল্ক করের পরিমাণ ছিল প্রায় ১২ লাখ টাকা। কিন্তু শুল্ক গোয়েন্দাদের হস্তক্ষেপে জরিমানাসহ অতিরিক্ত রাজস্ব আদায় হবে প্রায় ৬৯ লাখ টাকা।

‘দি কাস্টমস এ্যাক্ট ১৯৬৯ অনুযায়ী মামলা দায়ের করা হয়েছে। এছাড়া খালাসে জড়িতদের সংশ্লিষ্টতার বিষয়টি খতিয়ে দেখছে শুল্ক গোয়েন্দারা।

সাজেদুর রহমান / এম এম

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে