আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > অপরাধ > বনানী ছাত্রী ধর্ষণ মামলা: এবার আসামিদের মোবাইল সেটের ফরেনসিক পরীক্ষা

বনানী ছাত্রী ধর্ষণ মামলা: এবার আসামিদের মোবাইল সেটের ফরেনসিক পরীক্ষা

২০ মে ২০১৭,

a9efea70d7d8964d3ed230ae97732a03-591560b689b78

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক:

বনানীতে দুই ছাত্রী ধর্ষণ মামলার আসামিদের ৬টি মোবাইল ফোন সেট ফরেনসিক পরীক্ষার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তদন্তকারী সংস্থা পুলিশের উইমেন সাপোর্ট অ্যান্ড ইনভেস্টিগেশন বিভাগ। সেটগুলো সিআইডি’র ফরেনসিক ল্যাবে পাঠাতে আদালতের অনুমতি চেয়েছে তারা।
এদিকে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নির্যাতিত ছাত্রীদের ছবি প্রকাশ ও মন্তব্য করে হেয় প্রতিপন্ন করার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে সাইবার আইনে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের যুগ্ম কমিশনার আব্দুল বাতেন।
রাজধানীর বনানীতে রেইনট্রি হোটেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্রী ধর্ষণ মামলার অন্যতম আসামি সাফাত আহমেদ ও সাদমান সাকিফ আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়ার পর সবকিছু পরিষ্কার হয়ে গেছে। মামলার অন্য আসামি নাঈম আশরাফও পুলিশ হেফাজতে। এ’ পর্যায়ে মামলার যথেষ্ট অগ্রগতি দেখছেন গোয়েন্দা কর্মকর্তা আব্দুল বাতেন।
ঘটনার পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নির্যাতিত ছাত্রীদের ছবি প্রকাশিত হয়েছে। অনেকে মন্তব্যও করছেন তাতে। এ’সব ব্যক্তির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার কথাও জানান তিনি। বলেন, আদালতের নির্দেশে নির্যাতিত ছাত্রীদের সার্বক্ষণিক নিরাপত্তার ব্যবস্থা হয়েছে।
গত ২৮ মার্চ রেইনট্রি হোটেলে দুই ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে ৬ মে বনানী থানায় মামলা হয়। মামলার প্রধান আসামি শাফাত আহমেদ ও সাদমান সাকিফকে ১১ মে সিলেট থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। রিমান্ড শেষে বৃহষ্পতিবার আদালতে জবানবন্দি দেয় তারা।
১৫ মে ঢাকা থেকে গ্রেপ্তার হয় মামলার আসামি শাফাতের গাড়ি চালক বেল্লাল ও দেহরক্ষী রহমত আলী। আর অন্যতম আসামি নাঈম আশরাফ গ্রেপ্তার হয় গত বুধবার। ৭ দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে তাকে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে