আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > বিজ্ঞান প্রযুক্তি > নিরাপত্তারক্ষী খুঁজছে নাসা

নিরাপত্তারক্ষী খুঁজছে নাসা

nasa-logo-web-rgb

প্রতিচ্ছবি প্রযুক্তি ডেস্ক:

ভিনগ্রহীদের (এলিয়ন) হাত থেকে পৃথিবীকে বাঁচাতে দক্ষ ও মেধাবী কর্মী খুঁজছে যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা। চাঁদ, মঙ্গল বা ব্রহ্মাণ্ডের অন্যত্র মানবসভ্যতার দ্বিতীয় উপনিবেশ গড়ে উঠলে সেখানে যাতে এলিয়েনরা হামলা করতে না পারে এজন্য একজন দক্ষ নিরাপত্তারক্ষী খুঁজছে নাসা।

নাসা’র এই পদটির নাম ‘প্ল্যানেটারি প্রোটেকশন অফিসার’। তার মাসিক বেতন ১ লাখ ৮৭ হাজার মার্কিন ডলার। বাংলাদেশি টাকায় প্রায় দেড় কোটি টাকা । এটি ফুল টাইম চাকরি। প্রাথমিকভাবে তিন বছরের জন্য। তবে কাজ ভাল করলে এক্সটেনশন পেতে অসুবিধা হবে না আরও দু’বছরের জন্য।

নাসা’র পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, চাকরিপ্রার্থীকে বিশ্বের যে কোনও প্রান্তে যে কোনও সময় যাওয়ার জন্য তৈরি থাকতে হবে। তৈরি থাকতে হবে দিনে হাজার হাজার ই-মেইল পাওয়ার জন্য। কোনও অসামরিক সরকারি প্রশাসনের শীর্ষ পদে অন্তত এক বছর কাজ করার অভিজ্ঞাতা থাকতে হবে চাকরিপ্রার্থীর। তা ছাড়া পদার্থবিজ্ঞান, প্রযুক্তি ও গণিতে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি তো তার থাকতেই হবে। গ্রহের সুরক্ষা, নিরাপত্তা নিয়েও পর্যাপ্ত জ্ঞান থাকতে হবে চাকরিপ্রার্থীর। অত্যন্ত জটিল পরিস্থিতি সামলানোর জন্য প্রার্থীর কূটনৈতিক দক্ষতাও কাম্য। প্রার্থীকে অবশ্যই মার্কিন নাগরিক হতে হবে। তথ্যের গোপনীয়তা রক্ষার জন্য অন্য কোনও দেশের নাগরিকদের ওই চাকরির সুযোগ দিতে পারবে না বলে নাসার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, ১৯৬৭ সালে আউটার স্পেস ট্রিটি (ওএসটি)-তে সই করেছিল আমেরিকা। ওই চুক্তিতে যারা সই করেছেন, সেই দেশগুলোকে মহাকাশের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে হবে। দেশগুলো মহাকাশকে দূষিত করবে না, এই অঙ্গীকার করতে হবে। আর তা সুনিশ্চিত করতে মহাকাশ গবেষণা সংস্থাগুলিকে প্ল্যানেটারি প্রোটেকশন অফিসার নিয়োগ করতে হবে। এই ধরনের ফুল টাইম চাকরির আর একটি পদই রয়েছে গোটা বিশ্বে। সেটা ইউরোপিয়ান স্পেস এজেন্সি বা ইএসএ বা ‘এসা’র।

এ এস

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে