আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > জাতীয় > পিনাক ট্রাজেডির তিন বছরেও দোষীদের বিচার হয়নি

পিনাক ট্রাজেডির তিন বছরেও দোষীদের বিচার হয়নি

পিনাক ট্রাজেডির তিন বছরেও দোষীদের বিচার হয়নি

প্রতিচ্ছবি মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি:

মুন্সিগঞ্জের মাওয়ায় পিনাক-৬ লঞ্চডুবির তিন বছরেও চার্জশিট দিতে পারেনি পুলিশ। সাত বার বদল হয়েছে তদন্ত কর্মকর্তা। ২০১৪ সালের ৪ আগস্ট অতিরিক্ত যাত্রী বোঝাই পিনাক-৬ তলিয়ে যায় পদ্মার বুকে। মারা যায় ৪৯ যাত্রী। আর নিখোঁজের সংখ্যা ৬১।

পিনাক ট্রাজেডিতে এতো মৃত্যুর পরও পদ্মায় অতিরিক্তি যাত্রী নিয়ে লঞ্চ চলাচল বন্ধ হয়নি। ধারণক্ষমতার অতিরিক্ত আড়াইশ’রও বেশি যাত্রী নেয়ায় ২০১৪ সালে মুন্সিগঞ্জের মাওয়ায় ডুবে যায় পিনাক-৬।

ওই ঘটনায় ৪৯ জন যাত্রীর মৃতদেহ উদ্ধার করে ২৮ জনের মৃতদেহ পরিবারকে বুঝিয়ে দেয়া হয়। বাকি ২১ জনের ডিএনএ’র নমুনা রেখে বেওয়ারিশ হিসেবে দাফন করা হয়।

পিনাক ট্রাজেডির ৩ বছরেও সনাক্ত হয়নি মৃতদেহগুলো। আর নিখোঁজ ৬১ যাত্রীর সন্ধান মেলেনি আজও। ঘটনার পর ৭ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করে নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয় ও সমুদ্র পরিবহন অধিদপ্তর। থানাসহ বিভিন্ন দপ্তরে ৪টি মামলা হয়। সাতবার বদল হয় মামলার তদন্ত কর্মকর্তা।

আফসোস এত বড় দুর্ঘটনার পরও এরুটে অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে লঞ্চ চলাচল বন্ধ করতে পারেনি কর্তৃপক্ষ।

তবে বিআইডব্লিউটিসির কাঁঠালবাড়ি ঘাটের সহকারী ম্যানেজার মোমিন উদ্দিন জানালেন জনবল সংকটের কথা। দুর্ঘটনার সঠিক তদন্ত করে দ্রুত দোষীদের বিচারের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন পিনাক ট্রাজেডির নিহতদের স্বজনরা।

ডিডিআর/এআর

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে