আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > জাতীয় > অনিশ্চয়তার মুখে ৪০ হাজার হজযাত্রী

অনিশ্চয়তার মুখে ৪০ হাজার হজযাত্রী

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক :

ই-ভিসা ও পরিবহন জটিলতার সমাধান না হলে এ বছর হজ মৌসুমে ৪০ হাজার যাত্রীর হজ পালন অনিশ্চিত হয়ে পড়বে বলে জানিয়েছেন বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন।

তিনি বলেছেন, ‘বিমান বাংলাদেশ হজযাত্রী পরিবহনে শতভাগ প্রস্তুত হলেও ভিসা না পাওয়ায় তাদের (হজযাত্রীদের) পরিবহন করতে পারছে না। সবচেয়ে বড় সমস্যা হবে ফ্লাইট বরাদ্দ নিয়ে। বাতিল হওয়া ফ্লাইটগুলোর জন্য বিমান আবেদন করেছে। সেগুলো পেলে সমস্যা হবে না। আর না পেলে ৪০ হাজার হজযাত্রীর হজ অনিশ্চিত হয়ে পড়বে।’

মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর আশকোনা ক্যাম্পের হজ কার্যালয়ে ধর্ম ও বিমান মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে জরুরি বৈঠক শেষে তিনি এ কথা জানান।

তিনি অরো বলেন, ‘৪৫ হাজারের ভিসা হয়েছে। কিন্তু দেখা যাচ্ছে যে এজেন্সিগুলো, তারা যাত্রী নিচ্ছে না। কেন? কারণ দেখা যাচ্ছে যে ওই ৪৫ হাজারের মধ্যে গ্রুপ যেটা আছে, সেই গ্রুপ হয়তো চারজনের গ্রুপ, সেখানে একজন নাই, সুতরাং তারা দিচ্ছে না। এটা তো বিমানের কিছু করার নেই। কারণ যাত্রী না পেলে তো কিছু করার নেই। টিকেট তো আমরা আগেই রেখেছি।’

বৈঠকে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের উদাসীনতা ও হাব কার্যালয়ের ধীরগতির সমালোচনা করেন রাশেদ খান মেনন।

প্রসঙ্গত, ভিসা জটিলতায় যাত্রী সংকটে বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ও সৌদি এয়ারলাইন্স মোট ১২টি হজ ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। এর মধ্যে ৯টি বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের আর বাকি ৩টি সৌদি এয়ারলাইন্সের।

এ বছর সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় মোট হজযাত্রীর সংখ্যা ১ লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন। হজযাত্রীদের সৌদি আরবে যাত্রার প্রথম ফ্লাইট পৌঁছে ২৪ জুলাই। শেষ ফ্লাইট ২৮ আগস্ট। ফিরতি ফ্লাইট শুরু হবে ৬ সেপ্টেম্বর ও শেষ ফিরতি ফ্লাইট ৫ অক্টোবর। এ বছর চাঁদ দেখা সাপেক্ষে হজ অনুষ্ঠিত হবে ১ সেপ্টেম্বর।

এমএ/এ আর

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে