আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > বিনোদন-সংস্কৃতি > প্রিয়তির ঝুড়িতে আরো একটি আন্তর্জাতিক পুরষ্কার

প্রিয়তির ঝুড়িতে আরো একটি আন্তর্জাতিক পুরষ্কার

প্রিয়তির ঝুড়িতে আরো একটি আন্তর্জাতিক পুরষ্কার

প্রতিচ্ছবি বিনোদন ডেস্ক:

মিস আর্থ রানারআপ ও মিস আয়ারল্যান্ড খ্যাত বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত মডেল ও অভিনেত্রী মাকসুদা আক্তার প্রিয়তি। আন্তর্জাতিক অঙ্গনে সুনামের সঙ্গে মডেল হিসেবে কাজ করে যাচ্ছেন এ গ্ল্যামারাস কন্যা। আয়ারল্যান্ডের একাধিক সুন্দরী প্রতিযোগিতার বিচারকের দাায়িত্বও পালন করেছেন তিনি। এর বাইরে আয়ারল্যান্ডের সিনেমায়ও কাজ করছেন। সব মিলিয়ে বাংলাদেশের মেয়ে হিসেবে আন্তর্জাতিক অঙ্গন এখন দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন প্রিয়তি।

সেই তালিকায় যুক্ত হলো আরেকটি সাফল্য। সম্প্রতি আইরিশ মডেলিং ও বিনোদন শিল্পকে আন্তর্জাতিকভাবে প্রতিনিধিত্ব করার জন্য সম্মাননা পেয়েছেন প্রিয়তি। আইরেলিউড রেকগনিসন এ্যাওয়ার্ড ২০১৭-এ তাকে ‘আইরিশ মডেলি ইন্টারন্যাশনাল আইকন’ সম্মাননা দেয়া হয়েছে।

আইরিশ মডেলি ইন্টারন্যাশনাল আইকন

এ বিষয়ে প্রিয়তি নিজের ফেসবুকে কিছু ছবি পোস্ট করে লিখেছেন- “কথা ছিল সালমান খান এবং তার ড্যান্স গ্রুপ এর সাথে পারফর্ম করার। কিন্তু আয়োজক এবং সালমান খানের নিজস্ব কিছু কারণে বাতিল হয়েছে বলে আমাকে জানিয়েছে। আমি যার জন্য পাঁচ মাস নাচের প্রশিক্ষণ নিয়েছি যেহেতু আমি নৃত্যশিল্পী ছিলাম না (যদিও কোন কিছুর প্রশিক্ষণ কখনো বৃথা যায় না, গুণের পাল্লা একটু ভারী হলো। আমার কথা দেয়া অনুযায়ী আমার পারফর্মেন্স আমি করেছি ।”

তিনি আরও লিখেছেন- “যেহেতু আগে ভাগে কিছু বলে দিলে অনেক সময় সেই ব্যাপারটি আর হয়-না বা বাঁধা পড়ে, তাই এইবার এ্যাওয়ার্ড নমিনেসন, শো, পারফর্মেন্স নিয়েও চুপ ছিলাম ।”

তাই আমি আজ গর্ব আর আনন্দের সাথে জানাচ্ছি যে, আইরেলিউড রেকগনিসন এ্যাওয়ার্ড ২০১৭ থেকে আমাকে ”আইরিশ মডেলি ইন্টারন্যাশনাল আইকন” এ্যাওয়ার্ড দেয়া হয়, আইরিশ মডেলিং এবং প্যাজেনট্রি ইন্ডাস্ট্রিকে আন্তর্জাতিক ভাবে রিপ্রেজেন্ট প্রতিনিধিত্ব করার জন্য।“

‘আমি সম্মানিত ও আবেগপ্লুত । সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন “

উল্লেখ্য, এর আগে ৭০০ প্রতিযোগীকে হারিয়ে ‘মিস আয়ারল্যান্ড’ নির্বাচিত হন বাংলাদেশের মেয়ে মাকসুদা প্রিয়তি। একই সঙ্গে তিনি পান ‘সুপার মডেল’ ও ‘মিজ ফটোজেনিক’ খেতাব।

এসএম

 

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে