আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > অপরাধ > বগুড়ায় ৩ ধর্ষক রিমান্ডে: নারী কাউন্সিলর গ্রেফতার

বগুড়ায় ৩ ধর্ষক রিমান্ডে: নারী কাউন্সিলর গ্রেফতার

bogra-photo-5-30-7-17

প্রতিচ্ছবি বগুড়া প্রতিনিধি:

বগুড়ায় ছাত্রী ধর্ষণের পর সালিশের নামে মা-মেয়েকে মাথা ন্যাড়ার ঘটনায় শ্রমিক লীগ নেতা তুফান সরকারসহ গ্রেফতার তিন আসামিকে তিনদিনের রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ।

রোববার বিকেলে পুলিশ ৭ দিনের রিমান্ডের আবেদন করলে অতিরিক্ত চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আব্দুল্লাহ আল মামুন তিন দিনের  রিমান্ড মঞ্জুর করেন। ধর্ষণের মত জঘন্য ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে তুফান সরকারকে বগুড়া শহর শ্রমিক লীগের আহবায়ক পদ থেকে বহিস্কার করা হয়েছে।

এদিকে, এ ঘটনায় পলাতক নারী কাউন্সিলর মার্জিয়া হাসান রুমকী ও তার মাকে পাবনা থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

এ ঘটনার প্রতিবাদে শহরের সাতমাথায় বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন মানববন্ধন করেছে। মানববন্ধনে বক্তারা এ ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানিয়েছেন।

bogra-photo-4-30-7-17

পুলিশ সুত্রে জানা যায়, ‘গ্রেফতারকৃত ধর্ষক তুফান সরকারের সহযোগী আতিক অতিরিক্ত চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্টেট আদালতে স্বীকারোক্তি দিয়েছে। মামলায় অভিযুক্ত অন্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছেন তদন্তকারী কর্মকর্তা।

অপর দিকে জেলা প্রশাসন ওই ঘটনায় জনপ্রতিনিধির সম্পৃক্ততা সহ নির্যাতিত মা ও মেয়েকে প্রয়োজনীয় আইনগত সহযোগীতার জন্য ৩ সদস্যর একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আব্দুস সালামকে প্রধান করে এই তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। জেলা প্রশাসসক নুরে আলম সিদ্দিকী রোববার নির্যাতিত তরুণীর খোঁজ খবর নিতে মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে যান। এসময় তিনি তার সঙ্গে কথা বলেন। তিনি জানান তরুণীর লেখাপড়া, চিকিৎসা ও আইনগত সহযোগীতার বিষয়ে জেলা প্রশাসন কাজ করবে।

উল্লেখ্য, ‘বগুড়া শহরের বাদুরতলায় একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির প্রলোভন দিয়ে এক ছাত্রীকে ধর্ষণ করা হয়েছে। এ ঘটনার বিচারের নামে স্থানীয় নারী কাউন্সিলর মার্জিয়া হাসান রুমকি ও তার সহযোগীরা ওই তরুণী ও তার মাকে ধরে নিয়ে গিয়ে বাড়িতে আটকে রেখে নির্যাতন চালিয়ে চুল কেটে ন্যাড়া করে দেয়।

ধর্ষণের শিকার ওই তরুণী বর্তমানে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তরুণীর মা মুন্নি বেগম বাদী হয়ে অপহরণ, ধর্ষণ ও মারপিটের অভিযোগে সদর থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

আমজাদ হোসেন মিন্টু / আর এইচ

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে