আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > জাতীয় > ৬ দিনের রিমান্ডে জঙ্গি রাশেদ: জিজ্ঞাসাবাদের পরই হলি আর্টিজান হামলা মামলার চার্জশিট

৬ দিনের রিমান্ডে জঙ্গি রাশেদ: জিজ্ঞাসাবাদের পরই হলি আর্টিজান হামলা মামলার চার্জশিট

গুলশান হামলার অন্যতম ‘পরিকল্পনাকারী’ রাশেদ গ্রেপ্তার

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক:

হলি আর্টিজান জঙ্গি হামলার অন্যতম পরিকল্পনাকারী রাশেদ ওরফে র‌্যাশ ৬ দিনের পুলিশ রিমান্ডে।

দুপুরে তাকে আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ড চায় কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট। আদালত ৬ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এর আগে সংবাদ সম্মেলনে কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট জানায়, জঙ্গি রাশেদ ওরফে র‌্যাশকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে হলি আর্টিজান হামলা মামলার চার্জশিট দেয়া হবে।

ডিএমপির কাউন্টার টেরারিজম ইউনিট প্রধান মনিরুল ইসলাম জানান, ‘তামিম চৌধুরীর ঘনিষ্ট সহযোগী র‌্যাশ গুলশান হামলাকারীদের প্রশিক্ষণ দিয়েছিলো। রাশেদ গুলশান হামলা মামলায় মোস্ট ওয়ান্টেড ছিল। শুক্রবার নাটোরে সিংড়া থেকে র‌্যাশকে গ্রেফতার করে ঢাকায় আনা হয়।

গেল বছরের ১ জুলাই গুলশানের হলি আটিজান রেস্তোারায় হামলা চালায় নব্য জেএমবির জঙ্গিরা। হামলায় বিদেশি নাগরিকসহ ২২ জন নিহত হয়। পরদিন সেনাবাহিনীর কমান্ডো অভিযান অপারেশন থান্ডারবোল্টে নিহত হয় ৫ জঙ্গি। পরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তদন্তে উঠে আসে হামলার পরিকল্পনাকারী আরো ৫ জঙ্গির নাম। এদের মধ্যে অন্যতম আসলাম হোসেন রাশেদ ওরফে র‌্যাশ।

চাপাইনবাবগঞ্জ থেকে গ্রেফতার সোহেল মাহফুজের তথ্যের ভিত্তিতে শুক্রবার নাটোরের সিংড়া বাজার থেকে র‌্যাশকে গ্রেফতার করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

মনিরুল ইসলাম বলেন, গুলশান হামলায় ব্যবহৃত অস্ত্রও উত্তরবঙ্গ থেকে ঢাকা এনেছিলো জঙ্গি র‌্যাশ। সে অস্ত্রগুলো গ্রহণ করে ছোট মিজান। সেগুলো রাখা হয় কল্যানপুরের বাসায়। নব্য জেমএবির এক সময়ের প্রধান তামিম চৌধুরীর ঘনিষ্ঠ ছিলো রাশেদ। কল্যাণপুরের অভিযানের পর রাশেদ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। পরে সে পুরোনোদের সংগঠিত করে জঙ্গিগোষ্ঠিকে সক্রিয় করার চেষ্টা করে। মনিরুল ইসলাম জানান, জঙ্গি রাশেদকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে হলে হলি আর্টিজান জঙ্গি হামলা মামলার চার্জশিট দেয়া হবে। তিনি জানান, জঙ্গিদের এখন আর বড় ধরনের হামলা চালানোর সক্ষমতা নেই।

ডি ডি আর / আর এইচ

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে