আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > অর্থ-বাণিজ্য > রাসায়নিক আমদানির অনুমোদন পেতে কারখানা মালিকদের হয়রানি নয়

রাসায়নিক আমদানির অনুমোদন পেতে কারখানা মালিকদের হয়রানি নয়

রাসায়নিক আমদানিতে কারখানা মালিকদের হয়রানি নয়: এফবিসিসিআই সভাপতি

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক :

এফবিসিসিআই’র সভাপতি মো: শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন বলেছেন, দেশের কেমিকেল, চামড়া, টেক্সটাইল, টেক্সটাইল ডায়িং, ফার্মাসিউটিক্যাল, পেইন্ট, প্লাস্টিক, কসমেটিকস কলকারখানায় ব্যবহৃত রাসায়নিক আমদানির অনুমোদন পেতে গিয়ে শিল্প কারখানার মালিকগন যেন হয়রানির শিকার না হন সেদিকে খেয়াল রাখা দরকার।

বুধবার এফবিসিসিআই সম্মেলনকক্ষে অনুষ্ঠিত ‘শিল্প কারখানায় বিপদজনক রাসায়নিকের নিরাপদ ব্যবহার বিষয়ে সচেতনতা সৃষ্টি’ শীর্ষক এক আলোচনা অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন- এফবিসিসিআই প্রথম সহ-সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম, সহ-সভাপতি জনাব মোঃ মুনতাকিম আশরাফ ও এফবিসিসিআই পরিচালকবৃন্দ। এছাড়াও দেশের রাসায়নিক, বস্ত্র, ঔষধ, চামড়া, ডায়িং এবং প্লাস্টিক খাতগুলোর প্রতিনিধিবৃন্দ সভায় অংশ নেন।

আলোচনায় বিভিন্ন শিল্প কারখানার পাশাপাশি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমূহের ল্যাবরেটরিতেও রাসায়নিকের নিরাপদ ব্যবহারের ওপর গুরুত্ব দেয়া হয়।

এফবিসিসিআই সভাপতি বলেন, রাসায়নিক অস্ত্রের উন্নয়ন, উৎপাদন, মজুতকরণ, বিক্রি ও তার ব্যবহার নিষিদ্ধকরণ এবং সেসব ধ্বংসকরণ সংক্রান্ত কনভেনশনের বিধানাবলী কার্যকর করার লক্ষ্যে ২০০৬ সালে বাংলাদেশ জাতীয় সংসদে যে রাসায়নিক অস্ত্র নিষিদ্ধকরণ আইন পাশ হয় তা প্রণয়নের শুরু থেকেই এফবিসিসিআই বিএনএসিডব্লিউসি এর সাথে কাজ করে আসছে।

শফিউল ইসলাম রাসায়নিক অস্ত্র আইন-২০০৬ এবং বিধিমালা-২০১০ বাস্তবায়নে সচেতনতামূলক আলোচনা সভার উদ্যোগ নেয়ায় বিএনএসিডব্লিউসি-কে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান এবং কর্তৃপক্ষের সাথে আরও নিবিড়ভাবে কাজ করে যাওয়ার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।

বিএনএসিডব্লিউসি-এর সদস্য সচিব  কমোডর এস এম আবুল কালাম আজাদ দেশের শিল্প কারখানায় রাসায়নিকের নিরাপদ ব্যবহারের ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন। তিনি রাসায়নিক আমদানির ক্ষেত্রে যথাযথভাবে লাইসেন্স গ্রহণেরও আহবান জানান।

অনুষ্ঠানে বিএনএসিডব্লিউসি এর জেনারেল স্টাফ অফিসার লেফটেন্যান্ট কর্নেল মোঃ জাকারিয়া হোসেন, পিএসসি এবং লেফটেন্যান্ট কমান্ডার লুৎফুন নাহার রাসায়নিক অস্ত্র চুক্তি পর্যালোচনা, বিএনএসিডব্লিউসি-এর কার্যক্রম, বিধিমালা ও লাইসেন্স প্রদান পদ্ধতি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন।

এ আর

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে