আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > জাতীয় > সন্ধ্যায় জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠান

সন্ধ্যায় জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠান

সন্ধ্যায় জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৫ প্রদান অনুষ্ঠান

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক :

চলচ্চিত্রাঙ্গণের সবচেয়ে মূল্যবান পুরষ্কার ‘জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৫’ প্রদান করা হবে সোমবার। রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে সন্ধ্যায় বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ।

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত থাকবেন- জাতীয় সংসদের তথ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি এ কে এম রহমতউল্লা এবং তথ্যসচিব মরতুজা আহমদ। অনুষ্ঠানটির সঞ্চালনার দায়িত্বে থাকবেন শোবিজ জগতের জনপ্রিয় ও নামকরা দুই তারকা পূর্ণিমা ও চঞ্চল চৌধুরী।

অন্যান্য বছরের মতো এবারও নাচে-গানে ভরপুর থাকবে ‘জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৫’ প্রদান অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানে এবার পারফর্ম করবেন রিয়াজ, পপি, ফেরদৌস, অপু বিশ্বাস, জায়েদ খান, আইরিন, সাইমন ও নিপুণ। ভিন্ন পরিবেশনা নিয়ে হাজির হবেন মিশা সওদাগর ও বাপ্পি।

এ ছাড়া থাকছে জমকালো ও চোখ ধাঁধানো সব আয়োজন। আয়োজনে অংশগ্রহণকারীরা ইতিমধ্যেই সব প্রস্তুতি শেষ করে ফেলেছেন।

যেসব বিভাগে দেয়া হবে  জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৫

আজীবন সম্মাননা, সেরা চলচ্চিত্র, সেরা পরিচালক, সেরা অভিনেতা, সেরা অভিনেত্রী, সেরা পার্শ্বচরিত্রে অভিনেতা, সেরা পার্শ্বচরিত্রে অভিনেত্রী, সেরা খলচরিত্রে অভিনেতা, সেরা কৌতুক অভিনেতা, সেরা শিশুশিল্পী, সেরা সঙ্গীত পরিচালক, সেরা সুরকার, সেরা পুরুষ সঙ্গীতশিল্পী, সেরা নারী সঙ্গীতশিল্পী, সেরা গীতিকার, সেরা কাহিনীকার, সেরা চিত্রনাট্যকার, সেরা সংলাপ রচয়িতা, সেরা চিত্রগ্রাহক, সেরা শব্দগ্রাহক, সেরা সম্পাদক, সেরা শিল্প নির্দেশক, সেরা নৃত্য পরিচালক, সেরা মেকআপম্যান, সেরা পোশাক ও সাজসজ্জা ও সেরা বিশেষ শাখায়।

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার বাংলাদেশ চলচ্চিত্রের একমাত্র রাষ্ট্রীয় ও সর্বোচ্চ পুরস্কার।  ১৯৭৫ সাল থেকে এ পুরস্কার প্রদান করা হচ্ছে। এর আগে চলচ্চিত্রের জন্য আজীবন সম্মননা পুরস্কার দেয়া হতো না। ২০০৯ সালে এটিও চালু করা হয়।

বাংলাদেশ সরকার চলচ্চিত্র শিল্পের বিকাশ ও উন্নয়নে উল্লেখযোগ্য অবদানের জন্য ব্যক্তিবিশেষকে এবং শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র ও প্রামাণ্যচিত্রকে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রদান করে থাকে। পুরস্কার হিসেবে আঠার ক্যারেট মানের পনের গ্রাম স্বর্ণের একটি পদক, পদকের একটি রেপ্লিকা, একটি সম্মাননাপত্র দেয়া হয়।  আজীবন সম্মাননাপ্রাপ্তকে দেয়া হয় এক লাখ টাকা। শ্রেষ্ঠ পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র প্রযোজক ও শ্রেষ্ঠ স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র প্রযোজককে ৫০ হাজার টাকা করে দেয়া হয়। এছাড়া শ্রেষ্ঠ প্রামাণ্য চলচ্চিত্র প্রযোজক, শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র পরিচালককে ৫০ হাজার টাকা ও অন্যান্য ক্ষেত্রে ত্রিশ হাজার টাকা করে দেয়া হয়।

এ আর

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে