আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > আন্তর্জাতিক > চীন ভারত বিবাদ পর্যবেক্ষণ করছে যুক্তরাষ্ট্র

চীন ভারত বিবাদ পর্যবেক্ষণ করছে যুক্তরাষ্ট্র

চীন ভারত বিবাদ পর্যবেক্ষণ করছে যুক্তরাষ্ট্রপ্রতিচ্ছবি ইনটারন্যাশনাল ডেস্ক:

উগ্র হিন্দু জাতীয়তাবাদ ভারত ও চীনের মধ্যে যুদ্ধ বাঁধিয়ে দেয়ার ঝুঁকি তৈরি করছে অভিযোগ করে এ ব্যাপারে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছে চীন।

চীনের রাষ্ট্র নিয়ন্ত্রিত সংবাদপত্র দাবি করেছে, নরেন্দ্র মোদীর হিন্দু জাতীয়তাবাদ ভারতকে চীনের সঙ্গে যুদ্ধের দিকে ঠেলে দিচ্ছে। ডেইলি গ্লোবাল টাইমসের ‘হিন্দু জাতীয়তাবাদ ভারতকে চীনের সঙ্গে যুদ্ধের ঝুঁকির দিকে ঠেলে দিচ্ছে’ শীর্ষক কলামে বলা হয়, নরেন্দ্র মোদী নির্বাচিত হওয়ায় জাতীয়তাবাদী চিন্তাভাবনা শক্তিশালী হয়েছে।

ভারত চীন বিবাদ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। সীমান্তের উত্তেজনাকর পরিস্থিতি গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। ভুটান সীমান্তের বিতর্কিত এলাকা ডোকালাম অঞ্চলে এক মাস ধরে ভারত ও চীনের মধ্যে উত্তেজনা চলছে। দুই দেশই বিপুল সংখ্যক সেনা ও প্রচুর অস্ত্রশস্ত্র মজুদ করেছে সীমান্তে।

শুক্রবার একটি সংবাদ সম্মেলনে আমেরিকার পররাষ্ট্র বিভাগের মুখপাত্র হিদার নুয়ের্ট বলেন, ‘ভারত-চীন ইস্যুটি আমরা গভীরভাবে এবং সতর্কতার সাথে পর্যবেক্ষণ করছি। সমস্যা মোকাবেলার চীন-ভারতও বিষয়টি নিয়ে নিজেদের মধ্যে আলোচনা করতে যাচ্ছে। ‘

চলতি সপ্তাহে ভারতের পররাষ্ট্র সচিব এস জয়শঙ্কর বলেন, চীন এই বিষয়ে অস্বাভাবিক রকম আগ্রাসন প্রদর্শন করছে। ভারত কূটনৈতিক চ্যানেলে এই সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করছে। বৃহস্পতিবার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ‍সুষমা সিং স্বরাজ বলেন, যদি এটি ভুটান ও ভারতের বিষয় হত তাহলে আমাদের এটা নিয়ে ভাবার কিছু ছিল না। কিন্তু যেহেতু এটি তিন দেশের সংযোগস্থলে হচ্ছে, এতে আমাদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা ক্ষতিগ্রস্ত হবে। বিরোধী দলের নেতারাও বলেছে, সমস্যা সমাধানে সরকারের পদক্ষেপ তারা সমর্থন করবে।তিনি বলেন, ভারত এখন পর্যন্ত অযৌক্তিক কিছু বলেনি, সব দেশ আমাদের পাশে আছে।

চীন গত ১৬ জুন দাবি করে ভারতীয় সেনারা সিকিম সীমান্ত পার হয়ে ডংলাং মালভূমিতে প্রবেশ করে রাস্তা নির্মাণ বন্ধ করে দেয়। চীন এই মালভূমিকে ডংলাং বলে দাবি করে এবং নিজস্ব ভূখণ্ডের অংশ মনে করে। তবে ভুটানও এই ভূখণ্ডকে নিজেদের অংশ মনে করে এবং এই মালভূমিকে ডকলাম মালভূমি নামকরণ করে।

ডকলামকে উত্তেজনা প্রসঙ্গে গ্লোবাল টাইমস অভিযোগ করেছে, উন্নয়নের দিক থেকে ভারতবাসীর মনোযোগ ঘুরিয়ে দিতে সীমান্ত সমস্যাকে উস্কে দেয়া হচ্ছে।
এন টি

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে