আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > অপরাধ > আপন জুয়েলার্সের মালিকদের জিজ্ঞাসাবাদ করবে শুল্ক গোয়েন্দারা

আপন জুয়েলার্সের মালিকদের জিজ্ঞাসাবাদ করবে শুল্ক গোয়েন্দারা

১৫ মে, ২০১৭

bangladesh-customs-1024x1024

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক

রাজধানীতে আপন জুয়েলার্সের পাঁচ বিক্রয়কেন্দ্র অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ সোনা ও হীরা আটকের পর এবার প্রতিষ্ঠানটির সব মালিককে তলব করেছে শুল্ক গোয়েন্দা কর্তৃপক্ষ।

সোমবার শুল্ক গোয়েন্দা কর্তৃপক্ষ জানায়, গতকাল  আপন জুয়েলার্সের গুলশান, উত্তরা, মৌচাক ও সীমান্ত স্কয়ারের পাঁচটি বিক্রয়কেন্দ্র থেকে সোনা ও হীরা আটক করা হয়। এগুলো ব্যাখ্যাহীনভাবে মজুত রাখা ছিল। এ বিষয়ে জানতে দিলদার আহমেদসহ আপন জুয়েলার্সের সব মালিককে তলব করা হয়েছে। ১৭ মে বেলা ১১টায় শুল্ক গোয়েন্দার কাকরাইল সদর দপ্তরে তাদের হাজির থাকতে বলা হয়েছে।

গতকাল আপন জুয়েলার্সে অভিযান চালিয়ে ২৮৬ কেজি সোনা ও ৬১ গ্রাম হীরা ব্যাখ্যাহীনভাবে মজুত রাখার দায়ে সাময়িক আটক করেন শুল্ক গোয়েন্দারা। এসবের মূল্য ৮৫ কোটি ৩৮ লাখ টাকা। এসব মূল্যবান সামগ্রী সরবরাহের বৈধতা নিয়ে মালিকদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

আপন জুয়েলার্সের অন্যতম মালিক দিলদার আহমেদের ছেলে শাফাত আহমেদ রাজধানীর বনানীতে বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্রী ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি। তাকে ও তার বন্ধু সাদমান সাকিফকে সিলেট থেকে গত বৃহস্পতিবার গ্রেপ্তারের পর রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ। এ মামলার অন্য তিন আসামি এখনো পলাতক।

দুই ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হওয়ার ঘটনা ধামাচাপা দিতে আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদ ও তার ছেলে শাফাত আহমেদের বিপুল অর্থ খরচের তথ্য গণমাধ্যমে আসার পর শুল্ক গোয়েন্দারা বিষয়টি খতিয়ে দেখার সিদ্ধান্ত নেন।

এরই অংশ হিসেবে আপন জুয়েলার্সে অভিযান চালায় শুল্ক গোয়েন্দারা। এর আগে গতকাল যে হোটেলটিতে ধর্ষণের ঘটনা ঘটে সেই রেইনট্রি হোটেলে অভিযান চালিয়ে ১০ বােতল মদ উদ্ধার করে শুল্ক গোয়েন্দারা।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে