আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > চট্টগ্রাম > মিরসরাই ট্র্যাজেডির ৬ বছর

মিরসরাই ট্র্যাজেডির ৬ বছর

মিরসরাই ট্র্যাজেডির ৬ বছর

প্রতিচ্ছবি চট্টগ্রাম প্রতিনিধি :

চট্টগ্রামের মিরসরাই ট্র্যাজেডির ৬ বছর পরও পিতার কাঁধে পুত্রের লাশ, ভাইয়ের কাঁধে ভাইয়ের লাশ, মায়ের কোলে আদরের সন্তানের লাশ নেয়ার সেই দৃশ্য ভুলতে পারেনি মিরসরাইবাসী।

২০১১ সালের ১১ জুলাই ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের ফুটবল খেলা দেখে বাড়ি ফেরার পথে মিরসরাইয়ের আবুতোরাব বড়তাকিয়ায় স্মরণকালের ভয়াবহ মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় চিরতরে হারিয়ে যায় ৪৫টি তাজা প্রাণ। সেই ট্র্যাজেডিকে ঘিরে এখনো কান্না থামেনি সন্তানহারাদের।

mirsorai2

হৃদয়বিদারক সেই ট্র্যাজেডির ৬ষ্ঠ বর্ষপূর্তি আজ। ২০১১ সালের এই দিনে বঙ্গবন্ধু-বঙ্গমাতা ফুটবল টুর্নামেন্টের খেলা দেখে বাড়ি ফেরার পথে মিরসরাইয়ের আবুতোরাব বড়তাকিয়ায় ঘটে স্মরণকালের ভয়াবহ মর্মান্তিক দুর্ঘটনা।

অকালেই ঝরে যায় ৪৫টি তাজা প্রাণ। পিতার কাঁধে ছিল পুত্রের লাশ, যা একজন পিতার জন্য সবচেয়ে ভারি বস্তু। ছিল মা, বাবা, ভাই-বোন, আত্মীয়-স্বজন, পাড়া-প্রতিবেশীর আর্তনাদ। কেঁদেছে সবাই। গ্রামের পর গ্রাম পরিণত হয়েছে নিস্তব্ধ নগরীতে।

দূর্ঘটনায় নিহত ৪৫ জনের মধ্যে ৩৪ জনই ছিল মিরসরাই আবুতোরাব উচ্চবিদ্যালয়ের ছাত্র।

নিরাপদ সড়ক চাই নামে এক সংগঠনের চট্টগ্রামের সভাপতি আবু তৈয়ব জানান, সড়ক দূর্ঘটনা কমাতে চালকদের পাশাপাশি মানুষেরও সচেতন হওয়ার কথা।

২০১১ সালের ১১ জুলাই ঘটনাস্থলে ৪০ জন ও পরে দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরো ৫ জন মারা যায়। আহত হয় ১৬ জন শিক্ষার্থী। নানান কর্মসূচির মাধ্যমে ইতিহাসের সেই ভয়ালদিনটিকে স্মরণ করছে মিরসরাইবাসী।

জয় নয়ন/এআর / এম এম

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:

অনুরূপ সংবাদ

উপরে