আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > লাইফ-স্টাইল > বাসায় রাঁধুন হাজীর বিরিয়ানি

বাসায় রাঁধুন হাজীর বিরিয়ানি

maxresdefaultপ্রতিচ্ছবি ডেস্ক:

বিরিয়ানির ক্ষিদে জাগানো সুবাসই বলে দেয় ভোজন রসিকের তালিকায় এর কদর কতখানি। এই বিরিয়ানির রয়েছে নান ধরণ। স্থান ভেদে রয়েছে বৈচিত্র্য। আমাদের দেশে হাজীড় বিরিয়ানি খুব নামকরা। বাসার বিরিয়ানির সাথে পার্থক্য সহজেই টের পাওয়া যায়। তবে আর ভাবনা নেই। এখন বাসাই তৈরি করুন মজাদার হাজীর বিরিয়ানি।

যা যা লাগবে:

মাংস , পোলাওর চাল , পেঁয়াজ কুঁচি , আদা , রসুন গ, কাঁচা মরিচ, তরল দুধ , টক দই , এলাচি ও দারুচিনি , কাঠবাদাম , কিশমিশ , লবণ , তেল , তেজপাতা কয়েকটা।

প্রণালি:

রান্নার জন্য বড় পাত্র নির্বাচন করুন। মাংস ছোট ছোট টুকরা করে ধুয়ে নিন। চাল ভিজিয়ে রাখুন। রান্নার পাত্রে তেল ঢেলে গরম করে নিন। এবার মোট পেঁয়াজ কুচির তিন ভাগের এক ভাগ তেলে দিয়ে নাড়ুন। কিছুক্ষণ পর আদা ও রসুন বাটা দিয়ে নাড়ুন। মসলা নাড়তে নাড়তে অনেকটা বুন্দিয়ার মতো দানা হয়ে এলে বাকি পেঁয়াজ দিয়ে আবার নাড়ুন। এবার মাংস ঢেলে দিন। সেই সঙ্গে টক দই, দুধ, এলাচি, দারুচিনি, মরিচ, কাঠবাদাম, তেজপাতা, লবণ দিয়ে দিয়ে দিন। এই সময়ে মাংসটা ভালো করে নাড়তে হবে। মাংস সেদ্ধ হয়ে এলে একটা সুন্দর ঘ্রাণ ছড়াবে।

এবার মাংসের পাত্রে পর্যাপ্ত পানি দিতে হবে। প্রতি গ্লাস চালের জন্য চার গ্লাস পানি হিসেব করে নিলেই চলবে। পানিটা ফুটে এলে ভিজিয়ে রাখার পর নরম হয়ে আসা চাল দিয়ে দিন। এবার কিছুক্ষণ নেড়ে নিয়ে চুলার আঁচ কমিয়ে দমে দিয়ে রাখুন। ১৫ মিনিট পর পাত্রের ঢাকনা খুলে পুরো চালটা উল্টেপাল্টে দিন। তারপর আবার দমে দিয়ে রাখুন। আধঘণ্টা পর চাল ফুটে গেলে নামিয়ে পরিবেশন করতে পারেন মজাদার হাজীর বিরিয়ানি।

এন টি

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে