আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > রাজশাহী > বন্যা পরিস্থিতির অবনতি, পানিবন্দি ৫ হাজার পরিবার

বন্যা পরিস্থিতির অবনতি, পানিবন্দি ৫ হাজার পরিবার

বগুড়ায় বন্যা পরিস্থিতির অবনতি, পানিবন্দি ৫ হাজার পরিবার

প্রতিচ্ছবি বগুড়া প্রতিনিধি :

উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল আর গত ক’দিনের মাঝারি ও ভারী বর্ষনের কারণে যমুনার পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। শনিবার যমুনার পানি বগুড়ার সারিয়াকান্দি পয়েন্টে বিপদ সীমার ২১ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

যমুনার পানি বাড়ার কারণে নিচু এলাকায় পানি প্রবেশ করতে শুরু করছে। ফলে বন্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধে আশ্রয় নিতে শুরু করেছে যমুনা পাড়ের মানুষ। নিচু এলাকায় পানি প্রবেশ করতে থাকায় বেশ কিছু এলাকার প্রায় ৫ হাজার মানুষ পানিবন্দী হয়ে পড়েছে।

এছাড়াও চরাঞ্চলসহ নিচু এলাকার পাটের জমিতে পানি প্রবেশ করায় ফসলহানির আশংকা দেখা দিয়েছে।

শনিবার দুপুর পর্যন্ত যমুনার পানি বিপদ সীমার ২১ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়ায় সারিয়াকান্দির কুতুবপুর, বয়রাকান্দি, চন্দনবাইশা এবং কামালপুর ইউনিয়নের বন্যানিয়ন্ত্রন বাঁধের পূর্বাংশে পানি প্রবেশ করেছে।

flood-bogra

এদিকে সারিয়াকান্দির যমুনা চরের কর্ণিবাড়ি, কাজলা, চর-চালুয়াবাড়ি ও বোহাইল ইউনিয়নের নিচু এলাকার জায়গা-জমি ও বাড়ি ঘরে পানি প্রবেশ করেছে।

এরইমধ্যে নিচু এলাকার ৫ হাজার পরিবারের মানুষ পানিবন্দী হয়ে পড়েছে। বিপদের আশংকায় বন্যার্তদের অনেকেই আসবাবপত্র এবং ঘরের চাল নিয়ে বাঁধে আশ্রয় নিয়েছে।

উপজেলা নির্বহী কর্মকর্তা মোঃ মনিরুজ্জামান জানিয়েছেন, জেলা প্রশাসক তাৎক্ষিকভাবে বন্যার্তদের জন্য ৫০ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ করেছেন। আরো ৩শ’ মেট্রিক টন চাল এবং শুকনো খাবারের জন্য সংশ্লিষ্ট বিভাগে আবেদন করা হয়েছে।

বগুড়া-১ আসনের এমপি আব্দুল মান্নান কুতুবপুরে এক হাজার পরিবারের মধ্যে ২০ কেজি করে চাল বিতরন করেছেন। এছাড়া বিশুদ্ধ পানির জন্য বাঁধের বিভিন্ন স্থানে ২০টি নলকুপ বসানো হয়েছে। বাঁধে দেড় হাজার পরিবার আশ্রয় নিয়েছে।

আমজাদ মিন্টু/এআর

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে