আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > বিজ্ঞান প্রযুক্তি > দেশে ফোর জি ইন্টারনেট এবছরই

দেশে ফোর জি ইন্টারনেট এবছরই

দেশে ৪জি ইন্টারনেট এবছরই

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক:

ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে দেশব্যাপী চতুর্থ প্রজন্মের তারবিহীন ইন্টারনেট বা ফোরজি ইন্টারনেট সুবিধা চালু হচ্ছে এবছরই। এর ফলে জনগণ পাবে এলটিই প্রযুক্তির তারবিহীন আল্ট্রা গতির ইন্টারনেট ব্যবহার সুবিধা।

একজন থ্রি-জি মোবাইল গ্রাহক এখন যেখানে ইন্টারন্টে থেকে যে কোন কনটেন্ট ডাউনলোড করতে প্রতি সেকেন্ডে মাত্র ১৪ মেগাবাইট গতি পাচ্ছেন, সেখানে ফোরজিতে পাবেন ১ গিগাবাইট পার সেকেন্ড গতির ইন্টারনেট।

এছাড়া ফোরজিতে চলন্ত ট্রেন, গাড়ি বা বাস বসেও ডাটা ট্রান্সফারের গতি হবে প্রতিসেকেন্ডে ১০০ মেগাবাইট। সারা বিশ্বে থ্রি-জি নেটওয়ার্কের গড় ডাউনলোড স্পিড ৪.৪ এমবিপিএস। এলইইটি বা লং টার্ম এভোলুশন প্রযুক্তিকেই ফোর জি বলা হয়।

আইটি জার্নালের তথ্য অনুযায়ী, ফোরজি স্পিডের ক্ষেত্রে বর্তমানে শীর্ষে রয়েছে সিঙ্গাপুর। তবে ফোর জি পরিষেবা প্রদানকারী দেশগুলির মধ্যে এক নম্বরে দক্ষিণ কোরিয়া। বাংলাদেশে ফোরজি স্থাপনে আর্থিক ও কারিগরি সহযোগিতা করছে দক্ষিণ কোরিয়া।

পার্শবর্তী দেশ ভারত পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কা এরমধ্যে ফোর-জি প্রযুক্তি চালু করেছে। বাংলাদেশেও চলতি বছরেই এই প্রযুক্ত চালুর নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি উপদেষ্টা সজিব ওয়াজেদ জয়।

বিটিআরসি সূত্র জানায়, ফোরজি গাইড লাইন প্রনয়নের কাজ শেষ হয়েছে। এখন ফোর-জির লাইসেন্স প্রক্রিয়া শেষ হলেই দেশে ফোরজি নেটওয়ার্ক যাত্রা শুরু করবে। রাজধানী ঢাকাসহ সকল মেট্রোপলিটন শহর থেকে শুরু করে উপজেলা শহর পর্যন্ত অপটিক্যাল ফাইবার ও বিটিএস ট্রান্সমিশন যন্ত্র স্থাপনের কাজ চলছে।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তোলার জন্য ‘ওয়্যারলেস ব্রডব্যান্ড নেটওয়ার্ক (ফোরজি, এইটিই) স্থাপন’ প্রকল্পের কাজ শুরু হয়েছে ২০১৪ সালের মে মাসে। এ প্রকল্পের আওতায় উপজেলা পর্যন্ত চলছে ওয়ারলেস ব্রন্ডব্যান্ড নেটওয়ার্ক ট্রান্সমিশনের যন্ত্রপাতি স্থাপনের কাজ।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে