আপনি আছেন
প্রচ্ছদ > অপরাধ > র‌্যানসমওয়্যার সাইবার হামলা: ঝুঁকির মাঝে দেশ, সচেতন হবার পরামর্শ আইটি বিশেষজ্ঞদের

র‌্যানসমওয়্যার সাইবার হামলা: ঝুঁকির মাঝে দেশ, সচেতন হবার পরামর্শ আইটি বিশেষজ্ঞদের

১৩ মে ২০১১

bbcca

প্রতিচ্ছবি প্রতিবেদক
‘র‌্যানসমওয়্যার ছড়িয়ে’ বিশ্বের অন্তত ৯৯টি দেশে বড় ধরণের সাইবার হামলা ঘটানো হয়েছে। দক্ষিণ এশিয়ায় হামলার শিকার হওয়া ঝুঁকিপূর্ণ দেশগুলোর ম্যাপে রয়েছে বাংলাদেশও।
শুক্রবার হওয়া এ হামলায় বাংলাদেশের কোনো প্রতিষ্ঠান আক্রান্ত হয়েছে কিনা তা এখনো নিশ্চিত নয়। তবে বাংলাদেশ সাইবার হামলার বড় ধরনের ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে বলেই মনে করছেন আইটি বিশেষজ্ঞরা। র‌্যানসমওয়্যারের কোন অ্যান্টি-ভাইরাস না থাকায় আপাতত সচেতনাতাকেই মূখ্য বলে মনে করছেন তারা।

14856056_10157676968265788_5668415907452323025_o
এডিসন গ্রুপ অব কোম্পানির আইটি বিভাগের প্রধান হুসনা জামান আল হাদি জানালেন, ‘কোনো অ্যান্টি-ভাইরাস কোম্পানী র‌্যানসমওয়্যার ভাইরাসের প্রতিরোধ ব্যবস্থা তৈরী করতে পারেনি। তাই এই মুহুর্তে সচেতন হওয়া ছাড়া এর থেকে মুক্ত থাকার আর কোনো উপায় নেই।’
তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ এবং অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপভিত্তিক ওয়েবসাইট apk4you.com এর স্বত্বাধিকারী জিয়াউর রহমান জানালেন বড় ধরনের ঝুঁকির মধ্যেই রয়েছে বাংলাদেশ। বিশেষ করে বিভিন্ন গ্রুপ অফ কোম্পানীর ওয়েবসাইটগুলো।

তার ভাষায়, ‘বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত হামলার খবর পাওয়া না গেলেও সম্ভাবনা রয়েছে। বিশেষ করে সরকারি প্রতিষ্ঠান এবং বিভিন্ন গ্রুপ অফ কোম্পানীর ৩০০-৪০০ ওয়েবসাইট রয়েছে। যেগুলো অতিরিক্ত ভালনার‌্যাবল (নাজুক)। যদি বাংলাদেশ সাইবার হামলার শিকার হয়, তাহলে এসব ওয়েবসাইট একমূহুর্তে হামলাকারীর দখলে চলে যাবে।’

ziaur-rahman সচেতনতা দিয়ে আপাতত এ সমস্যা থেকে এড়িয়ে থাকা গেলেও কার্যকরী ব্যাবস্থা গ্রহনেরই পরামর্শ দিলেন তিনি, ‘যতদ্রুত সম্ভব দেশব্যাপী একটি অডিট করে সকল দুর্বল ওয়েবসাইট খুঁজে বের করতে হবে এবং বিশেষজ্ঞ দ্বারা শক্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।’
ইতোমধ্যে হামলার শিকার হওয়া বিভিন্ন দেশের ৭৫ হাজার সিস্টেমে থাকা কম্পিউটারগুলোর নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয়া হয়েছে। নিয়ন্ত্রণ ফিরে পেতে ৬ ঘন্টা সময় দেয়া হয়েছে। বিনিময়ে চাওয়া হয়েছে ৩০০ ডলার করে। প্রতি মুহুর্তে আক্রান্ত প্রতিষ্ঠানগুলো আরও নিয়ন্ত্রন হারাচ্ছে।
র‌্যানসমওয়্যারের হামলার শিকার পিসি কিছু গুরুত্বপূর্ণ ফাইল ও ফোল্ডার এনক্রিপ্ট হয়ে যাচ্ছে। যেগুলো ডিক্রিপ্ট না করা পর্যন্ত তা খোলা যাবে না বলে জানালেন এডিসন গ্রুপ অব কোম্পানির আইটি বিভাগের প্রধান।

তাই তার পরামর্শ।
১. সন্দেহজনক কোনো ইমেইল বা লিংক ওপেন করবেন না,
২. গুরুত্বপূর্ণ ফাইল ও ফোল্ডারের ব্যাক্আপ রাখুন।
৩. আপডেটেড অ্যান্টি-ভাইরাস এবং অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করুন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন:
symphony

অনুরূপ সংবাদ

উপরে